advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ট্রেনে কাটা পড়ে ভিক্ষুকের মৃত্যু, ঝুলিতে পাওয়া গেল ৮০ হাজার টাকা

সোনাতলা (বগুড়া) প্রতিনিধি
২২ মে ২০১৯ ১৭:১৩ | আপডেট: ২২ মে ২০১৯ ১৭:১৩

বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় ট্রেনে কাটা পড়ে খোকা মোল্লা নামের এক ভিক্ষুক নিহত হয়েছেন। আজ বুধবার সকালে ৯টার দিকে উপজেলার সুখানপুকুর রেল স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় তার কাছে থাকা ঝুলি থেকে ৮০ হাজার ১৯০ টাকা পাওয়া গেছে।

নিহত ওই ভিক্ষুক গাবতলী উপজেলার নেপালতলী ইউনিয়নের ধনঞ্জয় গ্রামের বাসিন্দা।

advertisement

স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, নিহত ওই ভিক্ষুক প্রায় ২৫ বছর ধরে ভিক্ষাবৃত্তি করে আসছিলেন। তিনি তার ভিক্ষাবৃত্তির টাকাগুলো ঝুলিতেই রাখতেন। বুধবার সকালে গাইবান্ধার বোনারপাড়া থেকে বগুড়ার সান্তাহারগামী একটি ট্রেন সুখানপুকুর স্টেশনে থামলে ওই ভিক্ষুক ট্রেনে ওঠেন। কিন্তু ট্রেন ছাড়লে তার হাতে থাকা ঝুলিটি নিচে পড়ে যায়। এ সময় তিনি ট্রেন থেকে নামার চেষ্টা করলে পড়ে যান এবং ট্রেনের চাকায় পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয় লোকজন ওই ভিক্ষুকের লাশে থাকা ঝুলিটি স্টেশন মাস্টারের কাছে জমা দেন।

ঝুলিতে টাকা থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাবতলী উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আবুল কালাম আজাদ বাদল। তিনি বলেন, ‘খুচরা ও নোট টাকাসহ ঝুলিতে ৮০ হাজার ১৯০ টাকা ছিল। যা গণনা করতে প্রায় তিন ঘণ্টা সময় লেগেছে।’

এ বিষয়ে সুখানপুকুর রেল স্টেশন মাস্টার আবদুল মতিন দৈনিক আমাদের সময়কে বলেন, ‘ভিক্ষুকের ঝুলি থেকে পাওয়া টাকাগুলো চেয়ারম্যান-মেম্বারদের উপস্থিতিতে ভিক্ষুকের পরিবারকে দেওয়া হয়েছে।’