advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

একই দিনে ইফতার ড. কামাল ও মন্টুর

২৩ মে ২০১৯ ০১:৪৫
আপডেট: ২৩ মে ২০১৯ ০৯:১৯
advertisement

একই দিনে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করছেন গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন ও দলটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু। আগে থেকেই এলিফ্যান্ট রোডের স্টার কাবাবে মন্টুর আগামী রবিবারের এই ইফতার মাহফিলের প্রস্তুতি চলছে। এরই মধ্যে ওই দিনে রাজধানীর হোটেল রাজমনি ঈশা খাঁতে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করছেন ড. কামাল হোসেন। তারা দাওয়াতপত্রও বিলি করেছেন। এ নিয়ে শুরু হয়েছে নানামুখী আলোচনা। মন্টু আলাদা রাজনৈতিক দল করছেন, এমন গুঞ্জনও ছড়িয়ে পড়েছে।

একাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠনে গণফোরামের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু বড় ভূমিকা রেখেছিলেন। কিন্তু নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্টের ভরাডুবি ও গণফোরাম থেকে নির্বাচিত সুলতান মনসুর ও মোকাব্বির খানের শপথগ্রহণ নিয়ে ড. কামাল ও মন্টুর সম্পর্কে চিড় ধরতে থাকে। গত ৫ মে মন্টুকে বাদ দিয়ে ড. রেজা কিবরিয়াকে গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক করা হয়। এর আগে ২৬ এপ্রিল অনুষ্ঠিত গণফোরামের বিশেষ কাউন্সিলেও যোগ দেননি মন্টু। তার অনুপস্থিতিতে ঘোষিত নির্বাহী কমিটিতে তাকে না রেখে দলের সাধারণ সদস্য হিসেবে তার নাম রাখা হয়। সেই থেকে গণফোরামের কার্যক্রম থেকে নিজেকে গুটিয়ে নেন মন্টু।

ইফতার আয়োজন সম্পর্কে জানতে চাইলে মোস্তফা মহসিন মন্টু আমাদের সময়কে বলেন, আমরা এলাকার লোকজন নিয়ে ইফতার পার্টির আয়োজন করেছি। কিন্তু এখন শুনছি গণফোরামও একই দিনে ইফতার পার্টি করছে। এখন কী যে করব বুঝতে পারছি না। ইফতার মাহফিল থেকে নতুন কোনো দলের ঘোষণা দেবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপাতত নয়। দেশের রাজনীতি কোন দিকে যাচ্ছে সেটাই এখন চিন্তার বিষয়। দল গঠন করলে গণফোরামের কমিটিতে যারা আছেন তারা যোগ দেবেন কিনা জানতে চাইলে মন্টু বলেন, আমি ডাকলে অনেকেই আসবেন। এমনকি প্রেসিডিয়ামের অন্তত ১০-১২ জন নেতা চলে আসবেন। তবে আপাতত সেরকম কিছু ভাবছি না।

মোস্তফা মহসিন মন্টুর ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, প্রতি বছরই ব্যক্তিগতভাব ইফতার মাহফিলের আয়োজন করে থাকেন মন্টু। এবারও গণফোরাম বাদে বিএনপির কয়েকজন সিনিয়র নেতা ও ঐক্যফ্রন্টের মাহমুদুর রহমান মান্না, আ স ম আব্দুর রবসহ কয়েকজনকে দাওয়াতপত্র পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া গত সংসদ নির্বাচনে যারা মন্টুর সঙ্গে কাজ করেছেন তাদেরও দাওয়াত দেওয়া হয়েছে।

এদিকে ইতোমধ্যে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের দাওয়াতপত্র দিয়েছে গণফোরাম। সিপিবি, বাসদ, বাম গণতান্ত্রিক জোটের নেতাদেরও দাওয়াত দেওয়া হয়েছে।

গণফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক লতিফুল বারী হামিম বলেন, মোস্তফা মহসিন মন্টু আমাদের দলের একজন কেন্দ্রীয় নেতা। আশা করি আমাদের ইফতার মাহফিলে তিনিও উপস্থিত থাকবেন। একই দিন তিনিও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেছেন কেন, সেটা আমি বলতে পারব না। তিনি তো ব্যক্তিগতভাবে প্রতিবছরই ইফতার মাহফিল করে থাকেন।