advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

৩ মাস ২২ দিন পর বাড়ি ফিরলেন যুবলীগ নেতা

নাটোর প্রতিনিধি
২৪ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৪ মে ২০১৯ ০৮:৫৬
advertisement

নাটোরে র‌্যাব পরিচয়ে অপহরণের ৩ মাস ২২ দিন পর বাড়ি ফিরলেন যুবলীগ নেতা জামিল হোসেন মিলন। গত বুধবার তাকে ঢাকার আব্দুল্লাহপুর এলাকায় চোখ বাঁধা অবস্থায় ছেড়ে দেওয়া হয়। মিলনের বাবা এমদাদুল হক মিয়াজি জানান, বুধবার বেলা ১১টার দিকে ঢাকার আব্দুল্লাহপুরে মাইক্রোবাস থেকে মিলনকে নামিয়ে দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে তার হাতে ২ হাজার টাকা দেওয়া হয়। মিলন বাসে করে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৬টায় নাটোরে আসে। এমদাদুল আরও জানান, মিলনকে আব্দুল্লাহপুরে নামানোর আগে চোখ বাঁধা অবস্থায় চারবার মাইক্রোবাস বদল করা হয়। 

ছাড়া অপহরণের এই ৩ মাস ২২ দিন ছোট একটি অন্ধকার রুমে মিলনকে আটকে রাখা হয়। তিনবেলা খাবার দেওয়া ছাড়া ওই রুমে কেউ আসত না। মিলন জানান, চোখ বেঁধে তাকে অপহরণ করা হয়েছিল। অন্ধকার রুমে একাই রাখা হয়েছিল। আবার চোখ বেঁধেই ছেড়ে দেওয়া হয়। তাই কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের তিনি চিনতে পারেননি বলে জানান।

এ ব্যাপারে নাটোরের পুলিশ সুপার সাইফুল্লাহ আল মামুন জানান, মিলনকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে এ ঘটনার সঙ্গে কারা জড়িত রয়েছে, তা নিশ্চিত হওয়া যাবে। এর পর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। গত ৩১ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১১টার দিকে সদর উপজেলার তালতলা হাফরাস্তা এলাকায় কর্মী-সমর্থকদের বিদায় করে নিজ অফিসে বসেছিলেন মিলন। এ সময় একটি মাইক্রোবাসে আসা কতিপয় অস্ত্রধারী নিজেদের র‌্যাব সদস্য পরিচয় দিয়ে মিলনকে মুখোশ পরিয়ে তুলে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় পরদিন ১ ফেব্রুয়ারি মিলনের বাবা এমদাদুল হক মিয়াজি র‌্যাব পরিচয়ে অপহরণের অভিযোগে নাটোর থানায় জিডি করেন।

advertisement