advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মিথ্যা তথ্য দিয়ে জামিন আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৪ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৪ মে ২০১৯ ০০:১৬
advertisement

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ৮ কোটি টাকা উদ্ধারের মামলায় মিথ্যা তথ্য দিয়ে জামিন আবেদন করায় হাইকোর্ট দুই আসামিকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও কেএম হাফিজুল আলমের বেঞ্চ এ আদেশ দেন। ৩০ দিনের মধ্যে এক লাখ টাকা আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামকে এবং বাকি এক লাখ টাকা জাতীয় অন্ধ কল্যাণে জমা দিতে হবে। এর ১০ দিনের মধ্যে তা আদালতকে অবহিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক। আসামি পক্ষে ছিলেন আইনজীবী কামাল পারভেজ। আদালতের আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করে আমিন উদ্দিন মানিক জানান, একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য মতিঝিল সিটি সেন্টারের আমেনা এন্টারপ্রাইজ এবং ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজ অ্যান্ড করপোরেশনে বসে দেশের বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকায় টাকা পাঠানোর সময় র‌্যাব-৩ অভিযান চালিয়ে নগদ ৮ কোটি ১৫ লাখ ৩৮ হাজার ৬৫০ টাকা উদ্ধারসহ ১০ কোটি ৮৯ লাখ টাকার ২৩টি চেক উদ্ধার করে। একই সঙ্গে আমেনা এন্টারপ্রাইজের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মো. জয়নাল আবেদীন ও তার অফিস সহকারী আলমগীর হোসেনকে আটক করে। এ ঘটনায় গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর মতিঝিল থানায় র‌্যাবের ডিএডি মো. ইব্রাহিম হোসেন মামলা করেন।

এ মামলায় ৩ এপ্রিল নিম্ন আদালত তাদের দুজনের জামিন নামঞ্জুর করেন। পরে ৫ মে তারা হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন। ৭ মে হাইকোর্ট তাদের জামিন আবেদন খারিজ করেন। তখন জামিন আবেদনের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন আঞ্জুমান আরা বেগম। পরে এ তথ্য গোপন করে ফের ২২ মে একই বেঞ্চে জামিন আবেদন করেন এই দুই আসামি। বৃহস্পতিবারের শুনানিতে বিষয়টি ধরা পড়ায় দুই আসামিকে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের আবেদনও খারিজ করে দেওয়া হয়।