advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা খুশি রবির ইফতারি পেয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৬ মে ২০১৯ ০৯:১৪

সংযম ও সহমর্মিতার বার্তা নিয়ে আসে পবিত্র মাহে রমজান। সব ভেদাভেদ ভুলে ন্যায় ও সাম্য প্রতিষ্ঠাই আরবি এ মাসের প্রকৃত মহিমা। আর সেই মাহাত্ম্যকে ছড়িয়ে দিতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছে দেশের অন্যতম মোবাইল ফোন অপারেটর কোম্পানি রবি। রাজধানীসহ চট্টগ্রাম, রাজশাহী ও রংপুরের বিভিন্ন স্থানে অসহায় সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মুখে ভালো মানের ইফতারি তুলে দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

রমজানের শুরু থেকেই নানারকম ইফতারি নিয়ে হাজির হচ্ছেন স্বেচ্ছাসেবকরা। আর এ উদ্যোগে সার্বিক সহযোগিতায় রয়েছে বিদ্যানন্দ। রবির ইফতার আয়োজনে প্রতিদিন রাজধানীর পাঁচটি স্থানে প্রায় চার হাজার শিশুর হাতে তুলে দেওয়া হয় এসব খাবার। এ ছাড়া ভ্রাম্যমাণভাবে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানেও দেওয়া হচ্ছে ইফতারি। এর মধ্যে কড়াইল বস্তি, ভাসানটেক, সাত নম্বর বস্তি, আরামবাগ, রায়েরবাজারে নিয়মিতই সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের হাতে খাবার তুলে দেওয়া হচ্ছে।

এ ছাড়া রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ সেহরি বিতরণের পাশাপাশি ভাসানটেক ও হাইকোর্ট মাজার এলাকায় ভাসমান মানুষকেও দেওয়া হচ্ছে সেহরি। সাত নম্বর বস্তি, আরামবাগ, রায়েরবাজারে গিয়ে দেখা যায়, ওইসব স্থানে ইফতার পরিবেশন করছেন বিদ্যানন্দের স্বেচ্ছাসেবকরা

প্রতিদিন বিকালেই তারা বিভিন্ন খাবার প্যাকেটজাত করে পরম মমতায় তুলে দেন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের হাতে। প্রায় প্রতিটি এলাকায় একযোগে সাতশ থেকে এক হাজার শিশু রবির ইফতারি নিচ্ছে। সুদৃশ্য প্যাকেটে এসব খাবার পেয়ে উচ্ছ্বসিত সুবিধাবঞ্চিত শিশুরাও। সবার মুখে ছিল প্রাপ্তি ও খুশির ঝিলিক।

রায়েরবাজার এলাকার সুবিধাবঞ্চিত শিশু সুমাইয়া আফরিন বলে, ‘এই ইফতারির জন্য অনেক শিশুই অপেক্ষায় থাকে। খাবারগুলোও ভালো।’ সুলতানা জান্নাত নামের একজন স্বেচ্ছাসেবক আমাদের সময়কে বলেন, ‘রমজানের শুরু থেকেই আমরা রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে শিশুদের স্বাস্থ্যসম্মত উন্নত ইফতারি তুলে দিচ্ছি। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মুখে হাসি ফোটাতেই আমাদের এ প্রচেষ্টা।’

এ ছাড়াও প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে ডিজিটাল ইফতার ভেন্ডিং মেশিন এনেছে রবি ও বিদ্যানন্দ। আঙুলের একটি ছাপেই পথশিশুরা সেখান থেকে পাবে সুস্বাদু ইফতারি বাক্স। তবে আপনার সহযোগিতা এ উদ্যোগকে করতে পারে আরও সমৃদ্ধ। রবি প্রি-পেইড নম্বরে ৪৩ ও ১১৮ টাকা রিচার্জ করলেই আপনার পক্ষ থেকে যথাক্রমে ২ ও ৪ টাকা চলে যাবে এ উদ্যোগে। আর রবির পক্ষ থেকে আপনি পাবেন ৭ ও ১০ দিন মেয়াদি ৭৫ ও ২১৫ মিনিটের আকর্ষণীয় মিনিট প্যাক।