advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মাদকাসক্তরা পরিবহনে যুক্ত হতে পারবে না -ডিএমপি কমিশনার

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৬ মে ২০১৯ ০৯:৩০
advertisement

মাদকাসক্তরা আমাদের জাতীর শত্রু। মাদকাসক্ত কেউই পরিবহনে যুক্ত থাকত পারবে না। মাদকাসক্ত কোনো চালক বা হেলপারের হাতে গাড়ির স্টিয়ারিং তুলে দেবেন না। গতকাল রাজধানীর মহাখালী আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালে আয়োজিত আইনশৃঙ্খলা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাসংক্রান্ত এক মতবিনিময় সভায় পরিবহন মালিকদের উদ্দেশে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, চালক কিংবা হেলপারকে মাদকাসক্ত মনে হলে তার ডোপ টেস্ট করান। তাকে গাড়ির কাজে নিয়োগ করবেন না। এ বিষয়ে আপনাদের সার্বিক সহযোগিতা করা হবে। মহাখালী বাস টার্মিনাল সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি ও ঢাকা জেলা বাস-মিনিবাস সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির আয়োজনে এবং ট্রাফিক উত্তর বিভাগের সহযোগিতায় এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, মাদকের কারণে অনেক বড় বড় দুর্ঘটনা ঘটে। গণপরিবহনের চালক-হেলপার মাতাল থাকলে ঝুঁকি আরও বেশি। মাদকাসক্ত কোনো লোক যেন গাড়ির ড্রাইভার, হেলপার ও কনডাক্টর হতে না পারে, এ বিষয়ে পরিবহন মালিক-শ্রমিককে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, ঈদযাত্রার সময় রাজধানীর যেসব পয়েন্টে গাড়ি বের হয় এবং প্রবেশ করে, সেগুলো ফাঁকা ও যানজটমুক্ত রাখতে হবে। তা হলে গাড়ি খুব দ্রুত যাত্রী নিয়ে প্রবেশ করতে পারবে, আবার বেরও হতে পারবে। এতে ঈদযাত্রার ভোগান্তি অনেকাংশে কমে আসবে।

ডিএমপি-প্রধান বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে যে ভাড়া নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে, তার বেশি ভাড়া নেওয়া যাবে না। সরকারের নির্দেশনা অমান্য করে টিকিট বেশি দামে বিক্রি করলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ক্ষেত্রে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। গত ১৯ দিনে রাজধানীতে কোনো ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেনি।