advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নেতাদের পকেট ভরাতে কৃষকদের বঞ্চিত করা হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
২৬ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৬ মে ২০১৯ ০৮:৫০
advertisement

বেসরকারি গুদাম ভাড়া করে ধান-চাল সংগ্রহ ও কৃষিঋণ মওকুফসহ কৃষকদের রক্ষায় সরকারের কাছে ৯ দফা দাবি জানিয়েছে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব দাবি জানিয়ে বলেছেন, আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের পকেট ভারী করতে তাদের ধান কেনার অনুমতি দিয়ে সরকার কৃষকদের ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত করছে। দেশে ধান উৎপাদন সম্পর্কে সরকার মিথ্যাচার করছে। সরকার বলছে, দেশ খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। অথচ প্রতিবছর ২০ থেকে ৩০ লাখ টন চাল আমদানি করছে। এর মধ্য দিয়ে ব্যাপক দুর্নীতি হচ্ছে।

গতকাল শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে ছিলেন বিএনপি নেতা আবদুস সালাম, শামসুজ্জামান দুদু, রুহুল কবির রিজভী, কাজী আবুল বাশার প্রমুখ। ৯ দফা দাবি তুলে ধরে মির্জা ফখরুল বলেন, কৃষকদের উৎপাদিত ধানের বিপরীতে সরকার ঘোষিত মূল্য অনুযায়ী কৃষককে কমপক্ষে ৩ মাসের জন্য সমপরিমাণ টাকা বিনা সুদে দিতে হবে। বেসরকারি গুদাম ভাড়া করে কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি বেশি পরিমাণে ধান চাল সংগ্রহ করতে হবে। এ জন্য ১০ হাজার কোটি টাকা অতিরিক্ত বরাদ্দ দিতে হবে। ধান বা চাল সংগ্রহের পরিমাণ বোরো উৎপাদনের কমপক্ষে ১৫ শতাংশ করার দাবি জানান তিনি। প্রান্তিক চাষি ও ক্ষেতমজুরদের জন্য বিশেষ সুদবিহীন ঋণের ব্যবস্থা এবং ধান চাল ক্রয়ে অসৎ কর্মকর্তাদের জড়িত না করারও দাবি জানান তিনি।

ফখরুল বলেন, কৃষকদের বিশেষ করে ধানচাষিদের চাওয়া হচ্ছে সরকার ন্যায্যমূল্যে চাষিদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কিনুক। এ চাওয়া খুবই সামান্য ও যৌক্তিক। আমরা এ যৌক্তিক দাবির সঙ্গে একমত।

advertisement