advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

এবার বিজেপির লক্ষ্য রাজ্যসভা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
২৬ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৬ মে ২০১৯ ০৯:২৫
advertisement

লোকসভা নির্বাচনে ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট টানা দ্বিতীয়বার একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করেছে। সাধারণ নির্বাচনে এমন সাফল্যের পর আগামী বছরের মধ্যে রাজ্যসভাতেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে চায় দলটি। গতকাল এ খবর দেয় হিন্দুস্তান টাইমস। গত পাঁচ বছর কেন্দ্র শাসন করলেও রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছিল না বিজেপির।

ফলে বিরোধীরা অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিল রাজ্যসভায় আটকে দিতে পেরেছে। কিন্তু দ্বিতীয়বার লোকসভায় নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ার পর রাজ্যসভাতেও একই লক্ষ্য বাস্তবায়ন করতে চাইছেন বিজেপির সভাপ্রধান অমিত শাহ। সংসদের দুই কক্ষেই যদি বিজেপির গরিষ্ঠতা থাকে, তা হলে তিন তালাক, মোটর ভেহিকল অ্যাক্ট ও নাগরিকত্ব আইনে সংশোধনী পাস করানো সহজ হবে।

লোকসভায় সংসদ সদস্যরা সরাসরি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হন। কিন্তু রাজ্যসভার সদস্যরা নির্বাচিত হন সংশ্লিষ্ট রাজ্যের বিধায়কদের দ্বারা। একটা রাজ্যে যে দলের যত বেশি বিধায়ক থাকবেন, সংসদের উচ্চকক্ষে তাদের প্রতিনিধি পাঠানোর সম্ভাবনা তত বেশি। রাজ্যসভার এমপি ছয় বছরের জন্য নির্বাচিত হন। লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হন পাঁচ বছরের জন্য। তবে রাজ্যসভার সব সদস্য একই সময়ে নির্বাচিত হন না। রাজ্যসভায় ২৪৫টি আসনের মধ্যে এনডিএর এমপির সংখ্যা ১০১।

এ ছাড়া তিন মনোনীত সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত, মেরি কোম ও নরেন্দ্র যাদব এবং তিন নির্দল এমপি বিজেপিকে সমর্থন করেন। সব মিলিয়ে রাজ্যসভায় বিজেপির শক্তি এখন ১০৭।

এখন থেকে ২০২০ সালের নভেম্বরের মধ্যে রাজ্যসভার ৭৫টি আসনে পুনর্নির্বাচন দরকার হবে।লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের ভরাডুবির পর এই কবিতা লিখেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। ফেসবুকে তার ভেরিফায়েড নীড়পাতা থেকে কবিতাটি তুলে দেওয়া হলো। শুক্রবার একই কবিতা তিনি ইংরেজি ও হিন্দিতে ভাষান্তর করেও সেখানে প্রকাশ করেছেন।

advertisement