advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

গোপালপুর থানার ৮ পুলিশ প্রত্যাহার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি
২৬ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৬ মে ২০১৯ ০৯:৪১
advertisement

টাঙ্গাইলের গোপালপুরে পুলিশের ধাওয়ায় হাকিম (৫০) নামের এক মাংস ব্যবসায়ীর মৃত্যুর ঘটনায় পরিস্থিতি সামাল দিতে গভীর রাতে ৮ পুলিশকে প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়েছে পুলিশ লাইনসে।

গত শুক্রবার বিকালে উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়নের ঝাওয়াইল বাজারের পাশে পুলিশের ধাওয়ায় হাকিম মারা যান। পুলিশের দাবি, জুয়ার আসর থেকে পালানোর সময় আহত হন হাকিম। হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

তবে পরিবারের দাবি, আটকের পর নির্যাতনের কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে। নিহত হাকিমের মেরুদ-ের হাড়ের পেছেনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. হারুন অর রশিদ।

এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য এসআই আবু তাহের ও এএসআই আশরাফুল আলমের বিচারের দাবিতে হাসাপাতালে মূল ফটকে বিক্ষোভ করে এলকাবাসী। এ সময় তারা ইফতারের পর থেকেই টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে রাস্তা অবরোধ করে রাখে। হাসপাতালের ভেতরেই অবরুদ্ধ করে রাখা হয় ওসিসহ পুলিশের বেশ কয়েকজন সদস্যকে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে এলাকাবাসীর সংঘর্ষ হয়। এতে রোকন নামে এক পুলিশ ও ৫ বিক্ষোভকারী আহত হন।

সূত্র জানায়, উপজেলার ঝাওয়াইল ইউনিয়নের ঝাওয়াইল গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে আব্দুল হাকিম কয়েকজন লোক নিয়ে স্থানীয় একটি জমিতে বসে তাস খেলছিল। এ সময় এসআই আবু তাহের ও এ এসআই আশরাফুল আলম একদল পুলিশ নিয়ে অভিযান চালায়। তিনজনকে আটক করলেও হাকিম দৌড় দেয়। পরে পুলিশ তাকেও আটক করে নির্যাতন চালায়। হাকিমের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ওই জায়গায়ই ফেলে আসা হয়। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঝাওয়াইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে আব্দুল হাকিমকে মাঠে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে কয়েকজন মিলে হাকিমকে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. হারুন অর রশিদ জানান, মৃত অবস্থায়ই হাকিমকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তার মেরুদ-ের নিচে আঘতের কারণে ক্ষতের চিহ্ন রয়েছে।

গোপালপুর থানা অফিসার ইনচার্জ হাসান আল মামুন জানান, জুয়া খেলার সময় ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। আর দুই জন পালিয়ে যায়। পরে এর মধ্যে হাকিম মারা যায়। তবে এঘটনায় অভিযানের থাকা ৮ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনসে নেওয়া হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।