advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নোয়াখালীতে গৃহবধূ গণধর্ষণ মামলায় আরও ৫ জন গ্রেপ্তার

২৬ মে ২০১৯ ১৪:৪৮
আপডেট: ২৬ মে ২০১৯ ১৪:৪৮
প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় মূল আসামিসহ আরও পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ নিয়ে গ্রেপ্তারের সংখ্যা দাঁড়ালো সাতজন। আজ রোববার তাদের আদালতে হাজির করে দুই জনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ।  

এর আগে শনিবার উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পুলিশ ও র‌্যাব যৌথ অভিযান চালিয়ে পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করে। গত শুক্রবারও উপজেলার দোয়ালিয়া গ্রামের একটি বাড়ি থেকে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন-মাহবুবুর রহমান বাবু, সাইফুল ইসলাম, হারুনুর রশিদ, পেয়ার আহমদ তারেক, আনোয়ার হোসেন, শামছুল আলম রাসেল ও পারভেজ।

পুলিশ জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলায় এক বাড়িতে ঢুকে ২ সন্তানের জননী এক গৃহবধূকে (২৬) আসামিরা পালাক্রমে ধর্ষণ করে। খবর পেয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানা পুলিশ ওই গৃহবধূকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় রাতেই ধর্ষিতার স্বামী বাদী হয়ে হারুন, বাবু ও সাইফুলকে আসামি করে এবং অজ্ঞাতনামা ৫০ থেকে ৬০ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) নুরে আলম জানান, র‌্যাব-১১ সদস্যরা গোপন সংবাদ পেয়ে মূল আসামি হারুনুর রশিদকে গ্রেপ্তার করেছে। এ পর্যন্ত সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও পৃথক দুটি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে হারুন ও বাবুকে পাঁচদিনের রিমান্ডে আনার জন্য আদালতে আবেদন করা হয়েছে।