advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ব্রিটিশ নাগরিকসহ লেকহেড স্কুলের শিক্ষক রিমান্ডে

আদালত প্রতিবেদক
২৬ মে ২০১৯ ২০:০৯ | আপডেট: ২৬ মে ২০১৯ ২০:০৯
advertisement

জঙ্গি সম্পৃক্ততার মামলায় বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক ইয়াছিন মোহাম্মদ আ. সামাদ তালুকদার (৩৭) এবং লেকহেড গ্রামার স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষক তেহজীব করিমের ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। দশ দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে আজ রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ এ রিমান্ডের আদেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক মো. রবিউল ইসলাম রাজধানীর গুলশান থানায় সন্ত্রাস বিরোধ আইনের মামলায় গত ১৭ মে এ রিমান্ড আবেদন করেন। যার উপর রোববার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, আসামি তেহজীব করিম জামাতুল মুসলিমিন (জেএম) এর সক্রিয় সদস্য। তিনি লেকহেড গ্রামার স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষক। ২০১০ সালে তিনি ইয়ামেনের জঙ্গী নেতা আনওয়ার-আল-আওলাকির সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন এবং সেখানে তিনি ১০ মাস কারাভোগ করেন।

তেহজীব করিমের দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে তার বড় ভাই রাজিব করিম আল-কায়দা মতাদর্শী ও ব্রিটিশ এয়ার ওয়েজে হামলার পরিকল্পনাকারী ছিল। এ অভিযোগে তার ৩০ বছর কারাদণ্ডিত হয়ে লন্ডনের জেলহাজতে রয়েছেন।

অন্যদিকে আসামি ইয়াছিন মোহাম্মদ আ. সামাদ তালুকদারের রিমান্ড আবেদনে বলা হয়, তিনি আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের আমীর মুফতি জসীম উদ্দিন রাহমানীর একনিষ্ঠ ভক্ত ছিলেন এবং তার হাতেমবাগ মসজিদে নিয়মিত যাতায়াত করতেন।

জসীম উদ্দিন রাহমানী তাকে বিভিন্ন জেহাদী লেকচারের ভিডিও এডিটিং করে বিভিন্ন অনলাইন গ্রুপে পোস্ট করার নির্দেশ দিতেন। জঙ্গীবাগে উদ্ধুদ্ধকরণের মুল পরিকল্পনাকারী এ মামলায় গ্রেপ্তার রিজওয়ান হারুনের সাথে তার ঘনিষ্ট যোগাযোগ ছিল।

উভয় আসামির প্রত্যক্ষ মদদে বাংলাদেশের সর্বপ্রথম আল-কায়দার মতাদর্শী জঙ্গী সংগঠন জামাতুল মুসলিমিন প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর ১৭টি দেশের জঙ্গী কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এ দুই আসামিসহ অন্যান্য সদস্যরা ঢাকা শহরে বিভিন্ন বাসা, মসজিদ এবং হারুন ইঞ্জিনিয়ারিং এর নিজস্ব অফিস (নর্থ সাউথ ইউনিভাসিটি সংলগ্ন) দাওয়া হালাকা কার্যক্রমের জন্য ব্যবহার করা হত।

ওই হালাকায় বয়ান করা হতো প্রচলিত ইমামের পিছনে জুম্মার নামাযসহ ওয়াক্তের নামায আদায় করা যাবে না। যারা জামাতুল মুসলিমিন এর বায়াহ করবেনা তারা সবাই কাফির। সংগঠনের সকল সদস্য হিজরত করবে। বাংলাদেশের প্রচলিত ঈদের নামাযের পরিবর্তে ইউনিফাইড মুন সাইটিং কমিটির নির্দেশনায় ঈদের আগে স্বপরিবারে নামায আদায় করবে।

সংগঠনের অপর আসামিদের, আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের এবং অন্যান্য জঙ্গী সংগঠনের সদস্যদের সনাক্ত করে গ্রেপ্তার এবং মামলার সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুরের প্রার্থণা করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

ইয়াছিন মোহাম্মদ আ. সামাদ তালুকদারের পক্ষে তার আইনজীবী মেরিনা আক্তার বলেন, বিগত ৩ বছর পর্যন্ত পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে গোপন রাখে। তার মায়ের উচ্চ আদালতে দায়ের করা রিটের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ তাকে গত ১৭ মে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে। আসামি ঘটনার সাথে জড়িত নয়। আমি তার জামিনের প্রার্থনা করছি।

তেহজীব করিমের পক্ষে তার আইনজীবী শারমিন সুলতানা হ্যাপি রিমান্ড বাতিল পূর্বক জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে প্রত্যেকের একদিন করে রিমান্ডের আদেশ দেন।

২০১৮ সালের ৩০ জানুয়ারি ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মনিরুল ইসলাম মৃধা মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় লেকহেড গ্রামার স্কুলের রিজওয়ান হারুন, এমডি খালেদ হাসান মতিনসহ অজ্ঞাতনামাদের আসামি করা হয়। আসামিদের বিরুদ্ধে স্কুলে শিক্ষা প্রদানের আড়ালে নিষিদ্ধ সত্তা (জঙ্গী সংগঠন) সমর্থন করে, সন্ত্রাসী কাজে অর্থায়ন করে এবং সন্ত্রাসী কাজ সংগঠনে সাহায্য ও সহায়তার অভিযোগ করা হয়।

advertisement