advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বগুড়ায় ডাকসু ভিপির ওপর ছাত্রলীগের হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া
২৭ মে ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৭ মে ২০১৯ ০১:১২
advertisement

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি নুরুল হক নুরের ওপর বগুড়ায় হামলা চালিয়েছেন ছাত্রলীগকর্মীরা। ইফতার মাহফিলে যোগ দিতে নুর বগুড়ায় এলে প্রথমে পুলিশ ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে বাধা দেয়। এর পর ছাত্রলীগকর্মীরা নুরসহ তার সহযোগীদের ওপরে হামলা চালান। এ সময় বগুড়ার দুই সংবাদিককেও মারধর করা হয়। সামান্য আহত হন নুরসহ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আরও তিনজন।

গতকাল রবিবার বিকালে বগুড়া শহরের সাতমাথাসংলগ্ন অ্যাডওয়ার্ড পৌরপার্কে অবস্থিত উডবার্ন পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের পক্ষ থেকে ওই মিলনায়তনে ইফতার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল।

সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ বগুড়া শাখার আহ্বায়ক রাকিবুল ইসলাম রাকিব জানান, তারা পৌর কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ওই মিলনায়তনে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেছিলেন। সেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর। কিন্তু দুপুরের পরেই বগুড়া সদর থানাপুলিশ ও ডিবি সদস্যরা মিলনায়তনে

গিয়ে তাদের অনুষ্ঠান বন্ধ করতে বলেন। পুলিশের দাবি, তারা ইফতার মাহফিলের জন্য প্রশাসনের আগাম কোনো অনুমতি নেননি। এর কিছুক্ষণ পরই ভিপি নুর ও তার সফরসঙ্গীরা ওই মিলনায়তনে পৌঁছেন। পরিস্থিতি নিয়ে তারা পুলিশের সঙ্গে কথা বলতে গেলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তাদের ওপরে হামলা চালান। এ সময় ভিপি নুর ও তার সফরসঙ্গী রাতুল, আপন ও ফারুক সামান্য আহত হন। ওই ঘটনার ভিডিও ধারণ করতে গেলে যমুনা টিভির ক্যামেরাপারসন শাহনেওয়াজ শাওন ও পু-্রকথা ওয়েব পোর্টালের আব্দুল আওয়ালকে ছাত্রলীগকর্মীরা পিটিয়ে আহত করেন। ভিপি নুরসহ আহতদের বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নুরুল হক নুরসহ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতারা বগুড়া ত্যাগ করেন।

হামলার প্রসঙ্গে বগুড়া জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈমুর রাজ্জাক তিতাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, রবিবার অ্যাডওয়ার্ড পার্কের দক্ষিণ পাশের টিটু মিলনায়তনে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের ইফতার মাহফিল ছিল। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সেখানে পৌঁছার পর জানতে পারেন পার্কের ভেতরে উডবার্ন লাইব্রেরি মিলনায়তনে ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের ব্যানারে শিবির ইফতার মাহফিল করছে। ছাত্রলীগের কিছু কর্মী বিষয়টি নিশ্চিত হতে সেখানে যায়। তারা দেখেন ডাকসুর ভিপি নুরসহ ঢাকার কিছু ছাত্র নেতা সেখানে এসেছেন। ছাত্রলীগকর্মীরা ভিপি নুরকে শিবিরের ওই ইফতার মাহফিলে অংশ নিতে মানা করেন। কিন্তু তিনি এ নিয়ে ছাত্রলীগকর্মীদের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়ালে একপর্যায়ে মারামারির ঘটনা ঘটে।

বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক রেজাউল করিম রেজা জানান, আগে অনুমতি না নিয়ে ওই মিলনায়তনে কর্মসূচি পালনের খবর জেনে পুলিশ সেখানে যায়। পুলিশ পৌঁছার আগেই সেখানে মারামারির ঘটনা ঘটে। বিক্ষুব্ধ কিছু ছাত্র ডাকসুর ভিপি ও তার সফরসঙ্গীদের মারধর করেছে বলে পুলিশ জেনেছে। এ বিষয়ে কেউ অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

advertisement