advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সন্তুষ্ট নন করুনারত্নে

ক্রীড়া প্রতিবেদক,ব্রিস্টল থেকে
১২ জুন ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১২ জুন ২০১৯ ০৯:৪২
advertisement

শ্রীলংকার অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নেও ব্রিস্টলের ম্যাচটি খেলতে চেয়েছিলেন। বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলে ২টি পয়েন্ট পেতে চেয়েছিলেন লংকান সেনাপতি। করুনারত্নের এই বৃষ্টির স্বাদ আরও একবার হয়েছে। পাকিস্তান-শ্রীলংকার ম্যাচটিও বৃষ্টিতে পণ্ড হয়ে যায়। শ্রীলংকা দুটি ম্যাচ থেকে ২ পয়েন্ট পেয়েছে বৃষ্টি থেকে।

করুনারত্নে হতাশা প্রকাশ করেছেন, ‘সিরিজ হলেও কথা ছিল। বিশ্বকাপের মঞ্চে এমন ম্যাচ বাতিল হয়ে গেলে কারইবা ভালো লাগে?’ সন্তুষ্ট হতে পারেননি তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন হতাশা নিয়ে। তিনি বলেছেন, ‘আমি আর কী বলতে পারি। আবহাওয়ার ওপর কারও হাত নেই।’ শ্রীলংকা এ টুর্নামেন্টে ৪ ম্যাচের দুটিতে খেলতে পারেনি। আর ১টি জয় ও ১টি পরাজয় রয়েছে তাদের।

করুনারত্নে বলেন, ‘প্রতিটি দলই খেলতে চায়। আমার দলও খেলতেই চেয়েছিল। আমরা খেলার জন্য ব্যাকুল ছিলাম। অনেক সময় পয়েন্ট ভাগাভাগি ভালো। তবে সব সময় পরিস্থিতি এক রকম থাকে না। কিন্তু আপনি এভাবে এই ভাঙা পয়েন্ট নিতে চাইবেন না। আপনাকে পরের রাউন্ডের জন্য লড়াই করতে হবে। সেজন্য এই পয়েন্ট ভালো নয়। আমাদের ভাগ্যই এমন। বৃষ্টি চলে এসেছে। আর পয়েন্ট কেটে নিয়ে চলে গেছে। আমরা পরের ম্যাচ নিয়ে ভাবছি।’ শ্রীলংকার পরের ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে।

করুনারত্নে বলেন, ‘প্রতিটি ম্যাচই চ্যালেঞ্জিং। আমরা সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করব। অস্ট্রেলিয়া কঠিন প্রতিপক্ষ। আমরা আফগানিস্তানের ম্যাচে জিতেছি। প্রতিটি ম্যাচেই কষ্ট করতে হয়। আমাদের অনেক কাজ বাকি আছে। আমরা ভালো খেলার চেষ্টা করব। আমরা সবাই জানি অস্ট্রেলিয়া কতটা ক্ষতি করতে পারে। আমরা এখন পরিকল্পনা করব। হাতে কিছু সময় আছে। দেখা যাক কী হয়।’

গ্রুপ পর্বে রিজার্ভ ডে থাকলে ভালো হয় কিনা? ২টি ম্যাচ বৃষ্টিতে বাতিল হলে তো ক্ষতি, ‘আমার কাছে মনে হয় ফরম্যাট অনেক বড়। এটা সহজ হবে না। আমরা সেটা আশা করতে পারি না। পরের ম্যাচটি নিয়েই আমাদের পরিকল্পনা। বিশ্বকাপ আগের চেয়ে কঠিন হয়ে গেছে এখন।’

advertisement