advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নিয়ন্ত্রণে না এলে বড় বিপর্যয়

সিরাজুল ইসলাম রনি, সভাপতি, জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক-কর্মচারী লীগ
১২ জুন ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১২ জুন ২০১৯ ০০:৪৭
advertisement

শিশুশ্রম নিয়ন্ত্রণে না এলে বড় ধরনের বিপর্যয় হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। রানা প্লাজা ধসের পর পুরো বিশ্বে নিন্দার ঝড় ওঠে। এর পর পোশাক কারখানাগুলো কমপ্লায়েন্স হয়েছে, সরকারের টনক নড়েছে। হয়তো এমন কোনো বড় ঘটনার জন্য আমরা অপেক্ষা করছি। এমন ঘটনা না ঘটলে সরকারের টনক নড়বে না। তিনি বলেন, এখনো অনেক সাবকন্ট্রাক্টের কারখানা শিশুদের দিয়ে কাজ করায়। বিজিএমইএ, বিকেএমইএর সদস্যভুক্ত কারখানাগুলো শিশুশ্রম মুক্ত রয়েছে বলেও দাবি করেছেন এই শ্রমিক নেতা। তবে আগের তুলনায় শিশুশ্রম কমেছে। এখন মালিকরা এ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন। তিনি বলেন, শিশুদের জন্য বাজেটে বরাদ্দ রাখতে হবে। বাজেটে এত বড় বড় বিষয় আসে তাতে সমস্যা হয় না। কিন্তু যখন শ্রমিকদের কথা আসে তখন সবাই হাত-পা ছেড়ে দেয়। শিশুদের আজ কোনো নিরাপত্তা নেই। ধর্ষণের শিকার হচ্ছে। তাদের নিরাপত্তার দায়িত্ব সরকারকেই নিতে হবে।

বাজেটে শিশুদের জন্য শিক্ষা, স্বাস্থ্যে বিশেষভাবে গুরুত্ব দিতে হবে। তিনি বলেন, শিল্পাঞ্চল এলাকায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে পারলে শ্রমিকদের শিশুরা সেখানে পড়ালেখা করতে পারবে। শিক্ষিত হয়ে অনেকগুণ বেশি আয় করতে পারবে। দেশকে বেশি ফেরত দিতে পারবে।

advertisement