advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কৃষি খাতে সহায়তা আরও বাড়ানো হবে

১২ জুন ২০১৯ ০১:৫৫
আপডেট: ১২ জুন ২০১৯ ০৯:১৬

কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক বলেছেন, সরকার কৃষির যান্ত্রিকীকরণে ৫০ থেকে ৭০ শতাংশ সহায়তা প্রদান করছে। প্রয়োজনে আরও সহায়তা বাড়ানো হবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার শুরু থেকেই কৃষি গবেষণায় বিশেষ জোর দিয়ে এ খাতে বরাদ্দ বৃদ্ধি করেছে। দেশের কৃষিবিজ্ঞানীরা নতুন নতুন ফসলের জাত উদ্ভাবন করছে। মাঠ পর্যায়ে তা সম্প্রসারিত হওয়ায় ফসলের ফলন উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই বাংলাদেশ আজ খাদ্য ঘাটতির দেশ হতে খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশে পরিণত হয়েছে।

গতকাল সচিবালয়ে বেশ কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রদূত এবং ইউরোপীয় মিশনের কমিউনিটি ডেপুটি চিফ কনস্টান্টিনো ওযার্ডকিসের সঙ্গে সাক্ষাৎকালে এসব কথা বলেন কৃষিমন্ত্রী।

বৈঠকে তারা আসন্ন এফএওর ডিজি নির্বাচনে ফ্রান্সের প্রার্থী জেসলেইন-লানিলির পক্ষে বাংলাদেশের সমর্থনের ব্যাপারে কথা বলেন। এ সময় ব্রেক্সিট নিয়েও কথা হয়। তারা বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী, কৃষির উন্নয়নে পূর্ণ সহযোগিতা করবেন। ইইউ বাংলাদেশের সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রেখে সুশাসন, অর্থনৈতিক অংশীদারিত্ব, রোহিঙ্গা সংকট, অভিবাসন, জলবায়ু পরিবর্তন এবং উন্নয়ন সহযোগিতার মতো পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়ে একসঙ্গে কাজ করবে। সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।

কৃষিমিন্ত্রী বলেন, কৃষকের উৎপাদন বেশি হলেই কৃষক প্রকৃত মূল্য পায় না। তাদের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা একান্ত অপরিহার্য। এর জন্য প্রয়োজন কৃষির প্রক্রিয়াজাত ও বাণিজ্যিকীকরণ এবং স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজার, এ ক্ষেত্রে আমাদের সহযোগিতা প্রয়োজন।