advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কেউ বলতে পারবেন না তিনি শতভাগ সৎ : প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
১২ জুন ২০১৯ ২১:৫৮ | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯ ০০:৫৩
ছবি : ফোকাস বাংলা
advertisement

কোনো সংস্থার কেউই নিজেকে শতভাগ সৎ বলে দাবি করতে পারবেন না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দুর্নীতি প্রসঙ্গে সংসদ সদস্য রওশন আরা মান্নানের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

সংসদ নেতা বলেন, ‘প্রশ্নটা আমি ভালোমত দেখেই গ্রহণ করি। এখানে প্রশ্নকারী যেটা বলেছেন, সংস্থার (দুদক) কেউ কেউ দুর্নীতিবাজ বলে জনশ্রুতি আছে। কথাটা একেবারে মিথ্যা না। আর সবাই তো ধোয়া তুলসির পাতা না। কেউ বলতে পারবেন না, সবাই একশ ভাগ সৎ।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সংস্থার মধ্যে অনেকেই দুর্নীতিবাজ বলে জনশ্রুতি আছে, প্রশ্নটা ঠিক আছে। সংস্থাকে এখন থেকে সচেতন হতে হবে। ওখানে যারা কাজ করবে তাদের ব্যাপারে সচেতন হতে হবে। তারা যেন ওই ধরনের তেমন কিছু না করে, যে ওই রকম জনশ্রুতি হয়।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘দুর্নীতি দমনই বলেন আর খাদ্য নিরাপত্তা অধিদপ্তরই বলেন, সবক্ষেত্রে দেখা যায়, এমন এমন অনেক বড় জায়গা আছে যেখানে হাত দিলেই মনে হয়, হাতটা পুড়ে যাচ্ছে। বড় প্রতিষ্ঠানে যারা অপরাধ ধরতে যায় তারাই যেন অপরাধী হয়ে যায়, আর কিছু পত্রিকা আছে সাথে লেখালেখি শুরু করে। আমাদের সচেতন থাকতে হবে, সঠিক তথ্য জেনে সেটা করা। কে কী বলল সেটা কান দেওয়ার দরকার নাই।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘কোনো ধরনের অপরাধের সঙ্গে আমার দলের কেউ যদি সম্পৃক্ত থাকে, আমি কিন্তু তাদেরও ছাড় দিচ্ছি না; ছাড় দেব না। আর অন্য কেউ যদি অপরাধ করে, তারা তো ছাড় পাবেই না। শাসনটা ঘর থেকেই করতে হবে; সেটাই করে যাচ্ছি। কোনো আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীর কেউ যদি এ ধরনের অপরাধ করে, তার বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি এবং এটা অব্যাহত থাকবে।’

সমাজ থেকে অনিয়ম দূর করতে সব সংসদ সদস্যসহ সমাজের সবার সহযোগিতা কামনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সমাজ থেকে অবিচার-অনিয়ম দূর করতে হবে। এজন্য সমাজের সচেতনতা থাকা একান্ত কর্তব্য। এটা শুধু একটি বাহিনীর বা কারও একজনের ওপর নির্ভরশীর নয়। এজন্য সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টি করতে হবে। দুর্নীতি আমরা করব না; দুর্নীতি করতে দেব না। সবাই এক হয়ে কাজ করলে সমাজ থেকে অনিয়ম দূর করে অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে পারব।’

advertisement