advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

এখন টাইগাররা টনটনে

মাইদুল আলম বাবু টনটন থেকে
১৩ জুন ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯ ১০:০৪

ব্রিস্টল থেকে টনটন খুব বেশি দূরে নয়। বাসযোগে প্রায় ১ ঘণ্টার পথ। ট্রেনে ৩০ মিনিট। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচের আগে লম্বা বিরতি। খেলবে ১৭ জুন। ফলে তাড়াহুড়া ছিল না। বাংলাদেশ ক্রিকেট দল গতকাল স্থানীয় সময় বেলা ১টায় ব্রিস্টল থেকে টনটনের উদ্দেশে রওনা দেয়। বেলা ২টা ১৫ মিনিটে পৌঁছে যায় টনটনে। খেলোয়াড়রা হতাশ ছিলেন না একেবারে।

রুবেলকে হাসিমুখে দেখা গেছে। মাশরাফিকে সেই চিরচেনা অবস্থায় দেখা গেছে। কারও মনে দুশ্চিন্তার কালো ছায়া নেই। এখনই সব কিছু শেষ হয়ে যায়নি। হাতে পাঁচটি ম্যাচ তো আছে! লড়াইটা মাশরাফি ও বাংলাদেশ ক্রিকেট দল জানে। বৃষ্টির ব্যাপারটি নিয়ে বেশ জোর আলোচনা চলছে দেশ ও দেশের বাইরে। আইসিসি গ্রুপ পর্বের ম্যাচে রিজার্ভ ডে রাখতে অপারগতা প্রকাশ করেছে। ডেভ রিচার্ডসন বিশেষ বার্তা দিয়েছেন।

তিনি জানিয়েছেন, বিশ্বকাপ অনেক বড় ফরম্যাটের। আর ব্রডকাস্টিং, এত লোকের থাকার ব্যবস্থা, স্পাই ক্যাম, যাতায়াত ব্যবস্থা, মাঠের কর্মীদের কার্যক্রম ও আরও অনেক সূচির সঙ্গে সম্পর্ক রেখে এটি অসম্ভব আইসিসির কাছে। অবশ্য এই বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল ও ফাইনাল ম্যাচে রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছে। বাংলাদেশ এই বিশ্বকাপে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জয়ে শুরু করে। নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের কাছে হেরে যায়।

ব্রিস্টলে শ্রীলংকার বিপক্ষে বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হলে ১ পয়েন্ট ভাগাভাগি হয়। বাংলাদেশ এই বিশ্বকাপে চার ম্যাচ থেকে ৩ পয়েন্ট পেয়েছে। এ অবস্থায় স্বাভাবিকভাবে কঠিন হয়ে গেছে। সেমিফাইনালে যেতে কমপক্ষে ১০ পয়েন্ট পেতে হবে। বাংলাদেশের হাতে আর পাঁচটি ম্যাচ রয়েছে; প্রয়োজন আরও ৭ পয়েন্ট। টনটনে এখন প্রার্থনা বৃষ্টি যেন না হয়। গতকাল ব্রিস্টলের হোটেল ছাড়ার সময় খেলোয়াড়রা কথা বলেননি।

বাশার বলেছেন, ‘বিশ্বকাপ চার বছর পর পর আসে। আমরা খুবই হতাশ হয়েছি। এই সময় এমন বৃষ্টি হয় সেটি তারা জানত। তা হলে কেন রিজার্ভ ডের ব্যবস্থা রাখল না। আমরা এখন আগামী পাঁচ ম্যাচের দিকে তাকিয়ে। আমাদের এখন প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। শ্রীলংকার ম্যাচটিতে আমরা ভালো করতে পারতাম সেটি তো প- হয়ে গেল। বাংলাদেশ ১৭ জুন টনটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মোকাবিলা করবে। বাংলাদেশের এখন জয়ের বিকল্প নেই। তারা সামর্থ্যরে সবটুকু দিয়ে চেষ্টা করবে।