advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দুর্গাপুরে টাকা না পেয়ে কৃষকের পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ

দুর্গাপুর প্রতিনিধি
১৩ জুন ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯ ০৯:৫৫
advertisement

রাজশাহীর দুর্গাপুরে ২০ হাজার টাকা না দিতে পারায় সাইদুল ইসলাম নামে এক কৃষককে পিটিয়ে পা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে দুর্গাপুর থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) হাফিজের বিরুদ্ধে। এতেই ক্ষান্ত হননি ওই এএসআই।

গত সোমবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করেন দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন সাইদুল ইসলাম।

সাইদুল ইসলাম জানান, ছেলের বউ তাদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত সোমবার রাতে ছেলে আসাদুল ইসলামকে আটক করে থানায় না গিয়ে হোজা অনন্তকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি ছেলেকে ছাড়াতে সেখানে ছুটে যান। তখন তার কাছে ২০ হাজার টাকা দাবি করেন এএসআই হাফিজ। টাকা দিতে না পারায় ছেলের সামনেই বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তার পা ভেঙে দেন হাফিজ। স্থানীয়রা তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে গভীর রাতে আসাদুলকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলেও জানান সাইদুল।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আসফাক হোসেন জানান, সাইদুল ইসলামের হাঁটুতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে হাড় ভেঙে গেছে। তবে এক্স-রে না করে নিশ্চিত হওয়া যাবে না কী পরিমাণ ভেঙেছে। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এক্স-রে মেশিন না থাকায় বাইরে থেকে করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। অবশ্য অভিযুক্ত এএসআই হাফিজুর পুরো ঘটনা অস্বীকার করে জানান, এ ঘটনা সত্য নয়, পুরোটা সাজানো, মিথ্যা, ভিত্তিহীন।

এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার ওসি আবদুল মোতালেব জানান, তিনি এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না। তার কাছে কেউ অভিযোগও করেনি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করা হবে।

advertisement