advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দুই জেলায় ৪ কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

আমাদের সময় ডেস্ক
১৩ জুন ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯ ০৯:৫৭

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ ও বন্দর এবং বরিশালের উজিরপুরে চার কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ছাড়া নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় এক গার্মেন্টকর্মীকে গণধর্ষণ মামলার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার শ্বশুরবাড়ি থেকে।

প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

advertisement

নারায়ণগঞ্জ : সিদ্ধিরগঞ্জের সুমিলপাড়া এলাকার এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার দুপুরে সুমিলপাড়া মুনলাইট সিনেমা হলের পূর্ব পাশের আব্দুল বারেক মিয়ার বাড়ির ভাড়াটে সলেমুদ্দি শিকদারের ছেলে আবু কালাম শিকদারকে (৪৫) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এর আগে সকালে কিশোরীর চাচা সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় আবুল কালামকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মীর শাহীন শাহ্ পারভেজ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপুলিশ পরিদর্শক (এসআই) হাফিজুর রহমান জানান, ওই কিশোরীর বাবা অসুস্থ থাকায় তাকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে এর আগেও একাধিকবার ধর্ষণ করেন আবু কালাম। সর্বশেষ গত মঙ্গলবার (১১ জুন) বাসায় একা পেয়ে বাসায় ডেকে ঘরে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন বলে অভিযোগে জানা যায়।

এ দিকে গত মঙ্গলবার রাতে বন্দর উপজেলার বঙ্গশাসন এলাকার পারটেক্স ক্যাবলসের পাশের একটি নির্জন স্থানে এক কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। রাতেই পুলিশ হৃদয় নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে। সে ওই কিশোরীর সৎ ভাই। এ ঘটনায় ধর্ষিতা বন্দর থানায় মামলা দায়ের করে। বন্দর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, গত কিছু দিন ধরে হৃদয় ওই কিশোরীকে উক্ত্যক্ত করছিল। মঙ্গলবার রাতে বাসায় ফেরার পথে তাকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে একটি ঝোঁপের আড়ালে ধর্ষণ করে। পুলিশ কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

পিরোজপুর : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গার্মেন্টকর্মী গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সুমনকে (২৫) গত মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলার লক্ষ্মীপুরা এলাকার শ্বশুরবাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করেছে ফতুল্লা থানা পুলিশ। ওই গার্মেন্টকর্মী গত ৭ জুন তার বান্ধবী মৌসুমীর ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ আরাফাত নগরের বাসায় বেড়াতে যায়। সেখান থেকে পরে ঘুরতে বের হলে বান্ধবীর সহায়তায় ৫ জন তাকে কৌশলে রক্তাবলী নদীর পাশে সলিম উদ্দীনের ইটভাটার একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে গণধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় মেয়েটি বাদী হয়ে ৪ জনের নামোল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ৩ জনকে আসামি করে ফতুল্লা থানায় মামলা দায়ের করেছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (ফতুল্লা থানার ইনস্পেক্টর) মো. আজিজুল হক জানান, সুমনকে ভাণ্ডারিয়া থানা পুলিশের সহায়তায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। সুমন পটুয়াখালী কলাপাড়া উপজেলার ধলেশ্বর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে।

উজিরপুর : বরিশালের উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের বান্না গ্রামের এক কিশোরীকে গত মঙ্গলবার বেলা ১১টায় একই বাড়ির জাফর গাজীর ছেলে রাজিব গাজী তার ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গতকাল বুধবার মেয়েটির বাবা থানায় মামলা দায়ের করেন।

এ দিকে জল্লা ইউনিয়নের মাদ্রা গ্রামের কারফা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে একই বাড়ির মৃত বিরেন শীলের ছেলে বিনোদ শীল গত ৯ মে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তার ঘরে ডেকে নিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে। গত মঙ্গলবার মেয়েটির মা থানায় ধর্ষক বিনোদ শীল এবং তাকে সহায়তাকারী অসীম শীল ও তপন শীলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।