advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

চবির কর্মচারী সাসপেন্ড

চবি প্রতিনিধি
১৩ জুন ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯ ১০:৩০
advertisement

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় আদালত কারাগারে পাঠানোর পর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) কর্মচারী ও সহকারী রেজিস্ট্রার নিবারণ বড়ুয়াকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

গতকাল বুধবার সাময়িক বরখাস্তের অফিস আদেশে স্বাক্ষর করেন চবির ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কেএম নুর আহমদ। অফিস আদেশে বলা হয়, নিবারণ বড়ুয়াকে ১১ জুন থেকে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। আদেশে চবি কর্মচারী (দক্ষতা ও শৃঙ্খলা) সংবিধির ১৫(এ) ধারায় নিবারণের বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয় বলে উল্লেখ করা হয়। চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনে করা মামলায় গত ১০ জুন নিবারণ বড়ুয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়।

চবির সহকারী রেজিস্ট্রার মো. মশিউর রহমান বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ২৯ মে বিকালে চবির সহকারী প্রক্টর হেলাল উদ্দিন ও লিটন মিত্র এবং কর্মচারী সমিতির সভাপতি আনোয়ার হোসেন বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে অবস্থান করছিলেন। এ সময় আনোয়ার হোসেনের মোবাইলে ফেসবুকে গিয়ে দেখেন, নিবারণ বড়ুয়া তার টাইমলাইনে ধর্মীয় অবমাননাকারী একটি পোস্ট দিয়েছেন। যা ধর্মপ্রাণ মুসলমান ও গোটা বিশ্বের মুসলিম সমাজের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছে। যা বাদীকেও আহত করেছে।

ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার কেএম নুর আহমদ বলেন, নিবারণ বড়ুয়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে এবং তিনি জেলে আছেন। নিয়ম অনুযায়ী তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। তবে বরখাস্তকালীন অবস্থায় তিনি নিয়মিত জীবিকা ভাতা পাবেন।

advertisement