advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দেশে টাকা পাঠাতে খরচ কমছে প্রবাসীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
১৩ জুন ২০১৯ ১৮:১৭ | আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯ ১৮:১৭
ফাইল ছবি

প্রবাসে কর্মরত বাংলাদেশিরা যাতে কম খরচে দেশে টাকা পাঠাতে পারেন সেজন্য বাড়তি ব্যয় কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে এবারের বাজেটে। বৈধ পথে অর্থ প্রেরণে উৎসাহিত করতে প্রস্তাবিত বাজেটে ২ শতাংশ হারে প্রণোদনা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টার দিকে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এই বাজেট উত্থাপন শুরু হয়। বাজেট উত্থাপন শেষ হয় পৌনে ৫টার দিকে। ‍

advertisement

বাজেট প্রস্তাবে বলা হয়, দেশে টাকা পাঠাতে এবং উৎসাহিত করতে প্রবাসীদের জন্য চলতি অর্থবছরে ৩ হাজার ৬০ কোটি টাকার বরাদ্দ রাখা হয়েছে। এর ফলে বিদেশ থেকে বৈধ পথে দেশে টাকা আসবে এবং অবৈধ বা হুন্ডির মাধ্যমে দেশে টাকা পাঠাতে তারা নিরুসাহিত হবেন।

প্রস্তাবিত বাজেটে আরও বলা হয়, বিদেশে প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীরা প্রায়ই নানা ধরনের দুর্ঘটনার শিকার হন। তাদের জীবন বীমা সুবিধা না থাকায় আর্থিক সুবিধা থেকে তারা বঞ্চিত হন। প্রবাসীদের বীমা সুবিধা দিতে এবার বাজেটে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

অসুস্থতা নিয়েই আজ জাতীয় সংসদে প্রবেশ করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বাজেট উত্থাপন শুরু করার কিছুক্ষণ পর অসুস্থতার কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বাজেট উত্থাপনের অনুরোধ জানান। পরে স্পিকারের অনুমতি নিয়ে বাজেট উত্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী।  

‘সমৃদ্ধ আগামীর পথযাত্রায় বাংলাদেশ : সময় এখন আমাদের, সময় এখন বাংলাদেশের’ শিরোনামে প্রস্তাবিত বাজেটের আকার পাঁচ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। দেশের ৪৮ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেট এটি।

এবারের বাজেট দেশের ৪৮তম, আওয়ামী লীগ সরকারের ২০তম এবং অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামালের প্রথম বাজেট।