advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘মা-ও খুব কেঁদেছেন’

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৯ জুন ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৯ জুন ২০১৯ ০২:৩৫
advertisement

বাংলাদেশের সেরা আরচার রোমান সানা ২০২০ টোকিও অলিম্পিকে সরাসরি খেলার টিকিট পেয়েছেন। নেদারল্যান্ডসে শেষ হওয়া বিশ^ আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপে সেমিফাইনালে ওঠার মধ্য দিয়ে অলিম্পিকে খেলার টিকিট পান রোমান। তার এমন সাফল্যে উচ্ছ্বসিত সবাই। গতকাল নেদারল্যান্ডস থেকে দেশে ফেরেন ইতিহাস সৃষ্টি করা এই আরচার।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপিসহ কর্মকর্তারা তাকে পুষ্পমাল্য দিয়ে অভিনন্দন জানান। ‘রোমান সানাকে অভিনন্দন’ লেখা ব্যানার সংবলিত গাড়িতে করে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম চত্বরে উপস্থিত হয় নেদারল্যান্ডস থেকে আসা আরচারি দলটি। সংবর্ধনায় সিক্ত হলেন দেশসেরা তীরন্দাজ রোমান সানা।

তিনি জানান, এই সংবর্ধানা আমাকে টোকিও অলিম্পিকে খেলায় অনুপ্রাণিত করবে। আশাকরি আমাদের পুরুষ রিকার্ভ দলটিও খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। আগামী বছরের জুনে অলিম্পিকের আগে জার্মানির বার্লিনে ওয়ার্ল্ড আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপেই যোগ্যতা যাচাই হবে। তিনি আরও বলেন, যখন আমি সেমিফাইনালে উঠে অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করলাম, তখন কেঁদেই ফেলেছিলাম। ঢাকায় এসে মায়ের সঙ্গে কথা হয়েছে। মা-ও খুব কেঁদেছেন আমার কথা শুনে।

বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা বলেন, ‘রোমান সানার অর্জনে আমরা গর্বিত। সামনের দিনগুলোতে আরচারির জন্য সব রকম সহায়তা থাকবে আমাদের পক্ষ থেকে। আশাকরি ভবিষ্যতে এমন সুখবর আরও ক্রীড়াবিদরা দেবেন। তাদের উন্নত প্রশিক্ষণের জন্য ইতোমধ্যে চীন থেকে ভারোত্তোলন এবং বক্সিংয়ের জন্য কোচ আনার চেষ্টা করছি। তা ছাড়া জাপানের সঙ্গেও আমাদের কথা হচ্ছে বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের কোচের বিষয়ে।’

আরচারি ফেডারেশনের সভাপতি লে. জেনারেল (অব) মো. মইনুল ইসলাম বলেন, ‘অলিম্পিকে সরাসরি খেলার দ্বার উন্মোচন হলো। তাই আমাদের ওপর চাপ বেড়ে গেল। ২০২৪ অলিম্পিককে এখন আমাদের লক্ষ্যে রাখতে হবে।’ আরচারির পৃষ্ঠপোষক সিটি গ্রুপের কর্মকর্তা জাফর উদ্দিন সিদ্দিকী বলেন, ‘আমরাও গর্বিত রোমান সানার এমন অর্জনে।’ সিটি গ্রুপের পক্ষ থেকে দুই লাখ টাকার চেক দেওয়া হয় রোমানকে। কৃতী এই ক্রীড়াবিদকে সংবর্ধনা দেবে তার দল বাংলাদেশ আনসারও।

সংস্থাটির ক্রীড়া অফিসার রায়হান ফকির বলেন, ‘আমাদের মহাপরিচালক কাজী শরীফ কায়কোবাদ শুভেচ্ছা জানিয়ে রোমান সানাকে সংবর্ধনা দেওয়ার কথা বলেছেন। খুব শিগগিরই আমরা এই সংবর্ধনার আয়োজন করব।’ সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব মাসুদ করিম ও ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীব উদ্দিন আহমেদ চপল উপস্থিত ছিলেন।