advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মোস্তাফিজের বৌভাত ১৩ জুলাই

ক্রীড়া প্রতিবেদক
৬ জুলাই ২০১৯ ২২:১৭ | আপডেট: ৭ জুলাই ২০১৯ ০৯:৫৬
মোস্তাফিজ ও তার স্ত্রী। পুরোনো ছবি
advertisement

বিশ্বকাপের আগেই সেরেছেন বিয়ের কাজ। বিশ্বকাপ শেষে দেশে ফিরেই বৌভাত আয়োজন করতে যাচ্ছেন ‘কাটার মাস্টার’ খ্যাত মোস্তাফিজুর রহমান।

সর্বোচ্চ গোপনীয়তায় বিয়ের কাজটি সম্পন্ন করেছিলেন জাতীয় দলের এই কাটার মাস্টরা। মায়ের ইচ্ছাতে পারিবারিকভাবেই মামাতো বোন সুমাইয়া পারভীন শিমুকে বিয়ে করেন তিনি।

মোস্তাফিজের বড়ভাই মাহফুজুর রহমান মিঠু জানালেন, আসছে ১৩ জুলাই (শনিবার) মোস্তাফিজের আনুষ্ঠানিক বৌভাত অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২২ মার্চ সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার হাদিপুর গ্রামের বাসিন্দা সুমাইয়া পারভীন শিমুকে বিয়ে করেন মোস্তাফিজ। শিমু বর্তমানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী। শিমুর বাবা রওনাকুল ইসলাম বাবু মোস্তাফিজুর রহমানের মেজো মামা।

জাতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার হলেও মোস্তাফিজের বিয়েটা সম্পন্ন হয় বড় ধরনের কোনো আয়োজন ছাড়াই। অনেকটা ঘরোয়া পরিবেশে। যেখানে হাতেগোনা পরিবারের কয়েকজন ছাড়া তাদের উভয় পরিবারের কোনো আত্মীয়-স্বজনও ছিলেন না।

তবে মোস্তাফিজের পরিবারের পক্ষ থেকে তখন জানানো হয়েছিল, বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। যেখানে থাকবেন অতিথিসহ উভয় পরিবারের আত্মীয়-স্বজন।

মোস্তাফিজের বড় ভাই মিঠু জানান, ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপ মিশন শেষ বাংলাদেশের। মোস্তাফিজদের সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার তারালী ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া গ্রামের বাড়িতে এখন চলছে বৌভাত আয়োজনের প্রস্তুতি। আত্মীয়স্বজনসহ শুভাকাঙ্ক্ষীদের আমন্ত্রণ জানানো ও বাড়িতে সাজসজ্জার কাজও চলছে জোরেশোরে।

বিয়েতে আমন্ত্রিত অতিথি কারা থাকবেন? এমন প্রশ্নে মোস্তাফিজের বড় ভাই বলেন, ‘আত্মীয়-স্বজনের পাশাপাশি এলাকাবাসী থাকবেন। তবে জাতীয় দলের অন্য কোনো খেলোয়াড় অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন কি না, সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলেননি। তবে বন্ধুরা বলেছেন বৌভাতে চমক থাকবে।’

এদিকে মোস্তাফিজুর রহমান দেশে ফিরে আসার পর ১০ জুলাই সাতক্ষীরার গ্রামের বাড়িতে ফিরবেন বলে জানান মোস্তাফিজের ঘনিষ্ঠ বন্ধু শাহিনুর রহমান।

advertisement