advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ভয়ের সিনেমা দেখতে হলে, অতঃপর...

বিনোদন ডেস্ক
১০ জুলাই ২০১৯ ১১:২০ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯ ১২:০৫
advertisement

ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন দেশের বাইরে। হঠাৎ খেয়াল হলো সিনেমা দেখবেন। ঠিক যেমন ভাবা তেমন কাজ। তখন হয়তো তিনি ঘুণাক্ষরে ভাবতেও পারেননি এটাই হবে তার দেখা শেষ ছবি। জানা গেছে, সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত হরর মুভি ‘অ্যানাবেল কামস হোম' দেখতে গিয়ে ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়। ঘটনাটি ঘটেছে থাইল্যান্ডে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম মিরর, দ্য সানসহ একাধিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, বার্নার্ড চ্যানিং (৭৭) নামে এক ব্রিটিশ নাগরিক ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন থাইল্যান্ডে। সে সময় সিনেমা দেখতে দেখতেই তিনি প্রাণ হারান।

সিনেমা হলে ওই ব্যক্তির পাশে বসে ছবিটি দেখছিলেন এক নারী। তার বক্তব্য অনুযায়ী, তিনি জানতেও পারেননি তার পাশের সিটের ভদ্রলোক প্রাণ হারিয়েছেন। ছবির শেষে যখন হলের আলো জ্বলে ওঠে তখন তিনিই প্রথম বিষয়টি লক্ষ্য করেন। এর পর তিনি জরুরি বিভাগে খবর দিলে তারা ওই ব্যক্তির দেহ ঢেকে অ্যাম্বুলেন্সে তুলে দেন। তাকে হাসপাতালে নেওয়া হলে জানা যায়, ছবি দেখতে দেখতেই মৃত্যু হয়েছে ওই ব্যক্তির।

অপর একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‌‘হলের প্রবেশদ্বারের কাছে কিছু লোক কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। ওরা ওই একই হলে ছিলেন যেখানে ওই ব্যক্তি মারা যান। ওরা হতচকিত হয়ে গেছেন এই রকম একটা ঘটনায়।’

কিছু লোক ওই ব্যক্তির কাছেই বসেছিলেন জানিয়ে ওই প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘কী হচ্ছে তা দেখার জন্য কাউকে অনুমতি দেননি হলের কর্মচারীরা। আমাদের ছবিও তুলতে দেওয়া হয়নি।’

এর আগে ২০১৬ সালে ‘দ্য কনজিউরিং ২’ দেখতে গিয়ে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের একটি সিনেমা হলে মৃত্যু হয়েছিল ৬৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তির। পরে জানা যায়, হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে তিনি মারা যান।

প্রসঙ্গত, ‘অ্যানাবেল কামস হোম’ দ্য কনজিউরিং ইউনিভার্সের ষষ্ঠ ছবি। ২০১৭ সালে ‘অ্যানাবেল: ক্রিয়েশন’-এর পর অ্যানাবেল সিরিজের এটি তৃতীয় ছবি।