advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হৃতিকের স্বীকারোক্তি!

বিনোদন ডেস্ক
১০ জুলাই ২০১৯ ১১:৫২ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯ ১২:০০
advertisement

বিতর্ক যেন রোশন পরিবারের পিছুই ছাড়ছে না। কিছুদিন আগেই বলিউড অভিনেতা হৃতিকের বোন সুনয়না ও তার সম্পর্ক নিয়ে অনেক জল ঘোলা হয়েছে। সুনয়নার দাবি, ভিন্ন ধর্মে ভালোবাসার জন্যেই তাকে ও তার প্রেমিককে শাস্তি পেতে হয়েছে। এ সময় দাদা হৃতিকও তাকে সাহায্য করেননি। এতদিন এ বিষয়ে চুপ থাকলেও সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে মুখ খুলেছেন হৃতিক।

জিনিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সুনয়না অভিযোগ করেন, বাবা রাকেশ রোশন তার প্রেমিককে মেনে নিচ্ছেন না। কারণ তার প্রেমিক রুহেল আমিন মুসলিম ধর্মাবলম্বী। এমনকি তিনি এও জানান, রুহেলের সঙ্গে সম্পর্কে থাকার জন্য রাকেশ রোশন চড়ও মেরেছেন তাকে। দাদা হৃতিকও এই বিষয়ে তাকে সাহায্য করেননি বলে জানান তিনি।

এ প্রসঙ্গে হৃতিক বলেন, ‘এটা সম্পূর্ণভাবে আমার পারিবারিক বিষয়। দিদির বর্তমান মানসিক পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে আমার কিছু বলা ঠিক হবে না। না জানি আমাদের মতো আরও কত পরিবার এই একই পরিস্থিতিতে রয়েছে, কিন্তু কিছু বলতে পারছে না। এই ধরনের বিষয়ের জন্য উপযুক্ত চিকিৎসার অভাব রয়েছে আমাদের দেশে। আর আমাদের পরিবারে ধর্মকে কোনোদিনই বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। আশা করি সেটা সবাই এতদিনে বুঝে গেছে।’

এর আগে সুনয়না বলেছিলেন তিনি নরকের মধ্যে বাস করছেন। এ বিষয়ে অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত ও তার বোন রঙ্গোলি চান্দেলের কাছে সাহায্য চেয়েছিলেন তিনি। রঙ্গোলির একাধিক টুইটের মাধ্যমেও এই কথাই জানা গিয়েছিল। তিনি বলেছিলেন, সুনয়নার পরিবার তার ওপর অত্যাচার করছে। তাই তিনি কঙ্গনার কাছে সাহায্য চেয়েছেন। সুনয়নার পরিবার তার প্রেমিককে মেনে নিচ্ছে না। তাকে বাড়িতে আটকে রেখেছে।

তবে এ ক্ষেত্রে রোশন পরিবারের স্বপক্ষে যুক্তি দিয়ে মুখ খুলেছিলেন হৃতিকের প্রাক্তন স্ত্রী সুজান খান। তিনি বলেছিলেন, রাকেশ রোশন অসুস্থ এবং হৃতিকের মায়ের মানসিক অবস্থা ঠিক নেই। তাই সবার উচিত রোশন পরিবারকে গোপনীয়তা বজায় রাখতে দেওয়া।

প্রসঙ্গত, হৃতিক এই মুহূর্তে ব্যস্ত রয়েছেন তার পরবর্তী ছবি ‘সুপার ৩০’-এর প্রচারে। ছবিটি মুক্তি পাবে আগামী ১২ জুলাই।