advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মুসলিম যুবককে গণপিটুনির ‌‌ভিডিও টিকটকে, ৩ অ্যাকাউন্ট বন্ধ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১০ জুলাই ২০১৯ ১৫:০৭ | আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯ ১৫:২৫
advertisement

ভিডিওর মাধ্যমে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে তিনটি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে জনপ্রিয় মাইক্রো-ভিডিও শেয়ারিং সামাজিক মাধ্যম অ্যাপ ‘টিকটক’। একই সঙ্গে ভারতের ঝাড়খণ্ডে কয়েক দিন আগে চোর সন্দেহে এক মুসলিম যুবককে পিটিয়ে খুন করানোর ঘটনা নিয়ে টিকটকে যে ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছিল, তাও মুছে দিয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, ঝাড়খণ্ডে চোর সন্দেহে মুসলিম যুবক ২৪ বছরের তবরেজ আনসারিকে পিটিয়ে খুন করে উন্মত্ত জনতা। পুলিশের হাতে তুলে দেওয়ার আগে ১৮ ঘণ্টা ধরে বেধড়ক পেটানো হয় ওই যুবককে। জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে বাধ্য করা হয় বলে অভিযোগ। ২২ জুন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তবরেজ। ঝাড়খণ্ডের খারসাওয়ানে ঘটে এই ঘটনা। সেই গণপিটুনির বহু ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।

ভারতীয় গণমাধ্যম ফাস্র্টপোস্টের খবরে বলা হয়েছে, ‘টিম ০৭’ নামে একটি গ্রুপ ওই ভিডিওটি আপলোড করেছিল, যাদের ফলোয়ার সংখ্যা প্রায় চার কোটির কাছাকাছি। এর পরই ভিডিওটি হিংসা ছড়াতে পারে- মুম্বাই পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন শিবসেনার কর্মী রমেশ সোলাংকি।

অভিযোগের ভিত্তিতেই ভিডিওটি টিকটক থেকে মুছে ফেলা হয়। একই সঙ্গে ‘০৭’ টিমের তিন ব্যবহারকারী হাসনাইন খান, ফয়সাল শেখ এবং সাধন ফারুকির অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়।

টিকটকে যে ভিডিওটি দেওয়া হয়েছিল তাতে বলা হয়েছে, ‘আপনারা হয়তো নিরপরাধ তবরেজ আনসারিকে মেরে ফেলেছেন, কাল যদি তার ছেলে বদলা নেয়, তখন কিন্তু বলবেন না সব মুসলিমই সন্ত্রাসবাদী।’

মামলাটি মুম্বাইয়ের এলটি মার্গ থানায় ১৫৩ (এ) এবং ভারতীয় পেনাল কোড (আইপিসি) ৩৪ এর অধীনে নিবন্ধন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

advertisement