advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

দুই সন্তানের মাকে প্রেমের প্রস্তাবের পর উত্ত্যক্ত, শেষে ধর্ষণ!

নিজস্ব প্রতিবেদকবগুড়া
১১ জুলাই ২০১৯ ২১:৪৪ | আপডেট: ১২ জুলাই ২০১৯ ০২:১৪
advertisement

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় ঘরে ঢুকে দুই সন্তানের মাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে ইকবাল হোসেন (৩০) নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে ধর্ষককে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

অভিযুক্ত ইকবাল হোসেন ধুনট উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের ধেরুয়াহাটি গ্রামের বাসিন্দা। এর আগে গত ৭ জুন রাতে বাবার বাড়িতে ধর্ষণের শিকার হন ওই নারী।

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দুই সন্তানের মাকে এক বিধবাকে একই গ্রামের ইকবাল হোসেন দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল কিন্তু প্রেমে সাড়া না পেয়ে ওই নারীকে উত্ত্যক্ত করেন। ওই নারীর পরিবারের পক্ষ থেকে এ বিষয়টি ইকবালের পরিবারকে জানানো হয়। এতে তাদের ওপর ক্ষুব্ধ হন ইকবাল হোসেন।

এ অবস্থায় গত ৭ জুন রাত সাড়ে ১১টার দিকে ইকবাল হোসেন ওই নারীর বাবার বাড়ি গিয়ে কৌশলে মেয়ের শয়নকক্ষে প্রবেশ করেন। এরপর অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তাকে ধর্ষণ করেন এ সময় ওই নারীর চিৎকারে বাড়ির লোকজন ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ইকবাল হোসেন পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে গতকাল বুধবার রাতে ধুনট থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলা ইকবাল হোসেন ও তার ভাই আল আমিন এবং আল মাহমুদকে আসামি করা হয়েছে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, ‘ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া ওই নারীর শারীরিক পরীক্ষার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য বগুড়া আদালতে পাঠানো হয়েছে।’