advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পর্তুগালে রোনালদোর সঙ্গে বিজ্ঞাপন চিত্রে বাংলাদেশি

নাঈম হাসান,পর্তুগাল
১৩ জুলাই ২০১৯ ১৯:৩৯ | আপডেট: ১৩ জুলাই ২০১৯ ১৯:৩৯
advertisement

পর্তুগালে মোবাইল অপারেটর কোম্পানি মিও'র একটি বিজ্ঞাপন চিত্রে ফুটবল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সঙ্গে একটি বিজ্ঞাপন চিত্রে অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশের মঈন উদ্দিন আহমেদ। বিজ্ঞাপন চিত্রটিতে পর্তুগালের ফুটবল তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোসহ আরো অংশ নেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবল তারকা নেইমার।

সম্প্রতি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর অফিসিয়াল ফেইসবুক পাতায় একটি বিজ্ঞাপন চিত্র পোস্ট করা হয়। যেখানে দেখা যায় রোনালদো তার বন্ধু নেইমারকে চাইনিজ পিং পং খেলা শেখাচ্ছেন। আর তাদের মধ্যকার খেলার অংশের ধারা বর্ণনা করছেন বাংলাদেশি মঈন উদ্দিন আহমেদ। এর আগে বিজ্ঞাপন চিত্রটির শুরুতে ছোট চিত্রেও পর্তুগিজ ভাষায় কথা বলতে দেখা যায় তাকে।

গত বৃহস্পতিবার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর অফিসিয়াল ফেইসবুক পেইজে উন্মুক্ত করা হয় পর্তুগিজ মোবাইল সংস্থা মিও'র এই বিজ্ঞাপনটি। ইতিমধ্যেই ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা সাড়ে তিন লক্ষ্য বার দেখেছেন ভিডিওটি। গত মাসের ২২ই জুন লিসবনে চিত্রধারণ করা হয় বিজ্ঞাপনটির।

মূলধারার এমন বিজ্ঞাপন চিত্রে কাজ করার অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে মঈন বলেন, ‌আমি মূলত অভিবাসন নিয়ে কাজ করি পুরোদমে একজন সমাজকর্মী। কিন্তু এর মাঝেও যখনই সুযোগ হয় চেষ্টা করি সাংস্কৃতিক অঙ্গনে কিছুটা হলেও সময় ব্যায় করতে। এই বিজ্ঞাপন চিত্রটিতে কাজ করার অভিজ্ঞতা অসাধারণ ছিলো। কারণ এটি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে ঘিরে বানানো। আশা করছি বিজ্ঞাপন চিত্রটি সবার ভালো লেগেছে।

সমাজকর্মী হিসেবে অভিবাসন নিয়ে কাজ করলেও সাংস্কৃতিক আঙ্গিনায় মঈনের সক্রিয় পদচারণা রয়েছে। পর্তুগালে শুরুর সময় থেকেই সংযুক্ত হয়েছেন স্থানীয় পর্তুগিজ থিয়েটার দলগুলোতে। বিভিন্ন সময়ে লিসবনে অনুষ্ঠিত স্থানীয় ফেস্টিভ্যালগুলোতেও মঈন দক্ষিণ এশিয় সংস্কৃতিকে তুলে ধরেছেন।

২০১৮ সালে লিসবনের থিয়েটার ত্রিনিদারের ১৫০ বছর ফুর্তিতে পর্তুগালের সেরা থিয়েটার শিল্পীদের অংশগ্রহণে পর্তুগালের বিখ্যাত নির্মাতা মার্কো মার্টিন্সের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয় থিয়েটার "Todo o Mundo é um Palco" অথবা "পুরো পৃথিবী এক পর্যায়ে" শোতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয়ে অংশ নিয়েছিলেন মঈন।

মঈন উদ্দিন আহমেদ পর্তুগালে স্থায়ীভাবে বসবাসের পাশাপাশি কাজ করছেন পর্তুগালের অভিবাসন হাইকমিশনের এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসেবে। পর্তুগালে অভিবাসন সংক্রান্ত বিভিন্ন সহায়তা প্রদান করে থাকে এই প্রতিষ্ঠান।

উল্লেখ্য, মঈন উদ্দিন আহমেদ বাংলাদেশের ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলার সন্তান। নিজ ভাষা বাংলার পাশাপাশি পর্তুগিজ ভাষাতে সমান পারদর্শী মঈন তার অদম্য কাজের মাধ্যমে পর্তুগালের বসবাসরত বাংলাদেশিদের জন্য উদাহরণ হয়ে রইলেন।

advertisement