advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নন্দীগ্রামে কৃষক লীগ নেতার বিরুদ্ধে স্ত্রী হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া
২২ জুলাই ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ জুলাই ২০১৯ ০০:৩১
advertisement

নন্দীগ্রামে দুই সন্তানের জননী ময়ূরী খাতুনকে (২৪) শ্বাসরোধে হত্যার পর লাশ গাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্বামী পৌর কৃষক লীগের সদস্য মাসুদ রানার বিরুদ্ধে।

গতকাল রবিবার দুপুরে পুলিশ ময়ূরীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নন্দীগ্রাম পৌর এলাকার ওসমান গনির ছেলে মাসুদ রানা প্রায় আট বছর আগে নাটোরের পাটুল গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে ময়ূরীকে বিয়ে করেন। তাদের এক ছেলে ও এক কন্যাসন্তান রয়েছে। মাসুদ রানা দীর্ঘদিন

ধরে অন্য নারীর সঙ্গে পরকীয়া, মাদকসেবনসহ নানা অনৈতিক কর্মকা-ে জড়িয়ে পড়েন। স্ত্রী এসবের প্রতিবাদ করতেন। এসব নিয়ে শনিবার রাতে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে ময়ূরীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন। পরে ঘটনা আত্মহত্যা বলে চালাতে লাশ বাড়ির পাশে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখেন। ঘটনার পর থেকে মাসুদ রানা ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

নিহতের বাবা আনোয়ার হোসেন বলেন, আমি মেয়ে হত্যার বিচার চাই।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি শওকত কবির বলেন, ঘটনাটি গুরুত্বসহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

advertisement