advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া, ছেলেধরা বলে ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
২২ জুলাই ২০১৯ ১৯:২৬ | আপডেট: ২৩ জুলাই ২০১৯ ০১:০৪
প্রতীকী ছবি
advertisement
advertisement

ঢাকার ধামরাইয়ে স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া করায় প্রবাস ফেরত এক ব্যবসায়ীকে ছেলেধরা বলে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গত রোববার দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার রোয়াইল ইউনিয়নের কৃষ্ণনগর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম আবুল কালাম আজাদ (২৭)।

আজ সোমবার ধামরাই থানার পরিদর্শক দীপক সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ঘটনায় ছয়জনকে আটক করেছে পুলিশ।

দীপক সাহা জানান, প্রবাস ফেরত আবুল কালাম আজাদ মাটির ব্যবসায়ী ছিলেন। একই এলাকার এক মুদি দোকানির স্ত্রীর সঙ্গে তার পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। ওই মুদি দোকানি তার দোকান পাহারা দেওয়ার জন্য রাতে সেখানেই থাকতেন। এই সুযোগে তার স্ত্রী প্রবাস ফেরত আবুল কালাম আজাদের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। তবে বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই মুদি দোকানি তার স্ত্রীকে ভয় দেখান ও হত্যার হুমকি দেন।

তিনি আরও জানায়, রোববার রাতে আবুল কালাম আজাদকে ওই দোকানি তার স্ত্রীর মাধ্যমে কৌশলে বাড়িতে ডেকে নেন। পরে সেখানে তাকে প্রথমে ছেলেধরা ও পরে ডাকাত বলে বেধড়ক মারপিট করা হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরকীয়ায় বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে স্বামী-স্ত্রীসহ তাদের সহযোগী ছয়জনকে আটক করে।

‘এটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড’-উল্লেখ করে দীপক সাহা বলেন, ‘হত্যাকারীরা নিজেদের বাঁচাতে নানা উপায় খুঁজতে থাকে ও ভুল তথ্য দেয়। পরে সন্দেহ হলে জিজ্ঞাসাবাদে মূল ঘটনা বেরিয়ে আসে।’

নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান।

advertisement