advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

একসঙ্গে দুই বোনকে ধর্ষণ, ‘ছেলেধরা’ চিৎকারে গ্রেপ্তার যুবক

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি,মোল্লা হারুন-উর-রশীদ
১৪ আগস্ট ২০১৯ ২১:৪২ | আপডেট: ১৪ আগস্ট ২০১৯ ২৩:৫২
প্রতীকী ছবি
advertisement

কুড়িগ্রামে একসঙ্গে দুই বোনকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনা দেখে এক শিশু ‘ছেলেধরা’ বলে চিৎকার শুরু করলে স্বজনরা রুবেল মিয়া (১৮) নামে একজনকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। পরে পুলিশে খবর দেওয়া হলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার সদর উপজেলায় রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ধর্ষণের শিকার দুজন মামাতো-ফুপাতো বোন বলে জানা গেছে। তাদের বয়স ৭ এবং ৮ বছর। এ ঘটনায় এক শিশুর মা রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। আজ বুধবার রুবেলকে আদালতে তোলার পর কুড়িগ্রাম সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট তাকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।

স্বজনরা জানান, প্রতিবেশীর বাড়িতে বিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছিল শিশু দুটি। অনুষ্ঠানে আসা প্রতিবেশী হোসেন আলীর ছেলে রুবেল মিয়া তাদের ফুসলিয়ে নিজের ফাঁকা বাড়িতে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এমন সময় ওই দুই শিশুকে ছেলেধরা ধরে নিয়ে গেছে বলে আরেক শিশু চিৎকার করলে স্বজনরা গিয়ে তাদের উদ্ধার করে এবং রুবেল মিয়াকে হাতেনাতে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু আহমেদ জানান, রুবেল মিয়াকে গ্রেপ্তারের পর আদালতে তোলা হলে তাকে কারাগারে পাঠানো আদেশ দেওয়া হয়। এছাড়া শিশু দুটিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

advertisement