advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

হেসনের জন্য অপেক্ষা

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৫ আগস্ট ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ আগস্ট ২০১৯ ০০:০৯
advertisement

স্টিভ রোডসের উত্তরসূরি হচ্ছেন কে? প্রথম দিকে বাতাসে জোরালো গুঞ্জন ছিল চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। লংকান কোচকেই নাকি আবারও বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ করা হচ্ছে! তবে এখন কেউ আর হাথুরুসিংহের নাম বলছেন না; বরং বলা হচ্ছে, টাইগারদের নতুন কোচ হতে চলেছেন মাইক হেসন!

নিউজিল্যান্ডের সাবেক প্রধান কোচ হেসন। এখনই নিশ্চিতভাবে বলা যাচ্ছে না তিনিই হচ্ছেন টাইগারদের পরবর্তী কোচ। কেননা ভারতও কোচ খুঁজছে। আর এ রেসে আছেন হেসনও। আগামীকাল প্রধান কোচের সাক্ষাৎকার নেবে বিসিসিআই। সংক্ষিপ্ত তালিকায় হেসন ছাড়াও আছেনÑ রবি শাস্ত্রী, টম মুডি, রবিন সিং, ফিল সিমন্স এবং লালচাঁদ রাজপুত। যদিও বাতাসে গুঞ্জন, শেষ পর্যন্ত রবি শাস্ত্রীকেই রেখে দিতে পারে বিসিসিআই। মাশরাফি-সাকিবদের প্রধান কোচ চূড়ান্ত করার আগে তাই বিসিবিকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে ভারতের দিকে! শেষ পর্যন্ত যদি হেসনকে বিসিসিআই বেছে নেয় তা হলে রাসেল ডমিঙ্গো কিংবা চন্ডিকা হাথুরুসিংহের মধ্যে থেকে যে কোনো একজনকে টাইগারদের প্রধান কোচ হিসেবে বেছে নেওয়ার সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি।

কদিন আগেই বিসিবি পরিচালক ও সংস্থাটির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জানিয়েছেন, প্রধান কোচের সংক্ষিপ্ত তালিকায় আছেন তিনজন। এর মধ্যে একজন হলেন দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সাবেক ক্রিকেট কোচ রাসেল ক্রেইগ ডমিঙ্গো। তিনি বলেছেন, ‘১০-১২ দিনের মধ্যেই জানা যাবে কে হচ্ছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পরবর্তী প্রধান কোচ।’

বিশ্বকাপ শেষে প্রধান কোচ স্টিভ রোডসকে বিদায় করে দেয় বিসিবি। এর পর থেকেই কোচ খোঁজা শুরু। অনেকেই আগ্রহ দেখিয়েছেন। সাকিবদের হেড কোচ হওয়ার তালিকায় গ্যারি কারস্টেন, টম মুডি, মিকি আর্থার, চন্ডিকা হাথুরুসিংহে, মাহেলা জয়াবর্ধনের মতো তারকাদের নাম শোনা গেছে। ইতোমধ্যে ডমিঙ্গো ঢাকায় এসে সাক্ষাৎকার দিয়ে গেছেন। তার প্রেজেন্টেশনে সন্তুষ্ট বিসিবি। জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘তিনি (ডমিঙ্গো) একটা প্রেজেন্টেশন দিয়েছেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে নিয়ে তার ভাবনা, কীভাবে ডেলিভারি দেবেন, পারফরম্যান্স কীভাবে হবে এখানে সব কিছু মিলিয়ে তার সঙ্গে কথা হয়েছে। তার প্রেজেন্টেশনে আমরা সন্তুষ্ট। তবে এটাই শেষ নয়। আরও কয়েকজন আছে। তাদেরও আমরা দেখব।’

বিসিবি কর্তারা চাইছেন একজন ভালো কোচ। বিসিবির পছন্দ এমন একজন কোচ যে কিনা দায়িত্বশীল, অভিভাবকসুলভ, স্কিল ও প্ল্যানিংয়ে দক্ষ, খেলোয়াড়দের শেখানো এবং পারফরম্যান্স আদায় করে নিতে পারবেন।

এরই মধ্যে পেস বোলিং কোচ হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার চার্ল ল্যাঙ্গেভেল্ট আর স্পিন উপদেষ্টা কোচ হিসেবে নিউজিল্যান্ডের সাবেক অলরাউন্ডার ড্যানিয়েল ভেট্টরিকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। ল্যাঙ্গেভেল্টকে পুরো সময়ের জন্য আর ভেট্টরির সঙ্গে বছরে ১০০ দিনের জন্য চুক্তি করেছে। এখন অপেক্ষা প্রধান কোচের। গতকাল ঢাকায় আসার কথা ছিল মাইক হেসনের। জানা গেছে, তিনি আসতে পারেন শনিবার! তবে ভারতের কোচ হয়ে গেলে ঢাকায় আর আসবেন না হেসন। তখন ডমিঙ্গো কিংবা নতুন কাউকে বেছে নিতে হবে বিসিবিকে। আবার সাবেক কোচ হাথুরুসিংহেকেও নতুন করে টাইগারদের দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে।

গতকাল জালাল ইউনুস অবশ্য জানালেন, দুদিনের মধ্যেই কোচ চূড়ান্ত করতে চায় বিসিবি। তিনি জানান, এ সপ্তাহে সাক্ষাৎকারের পর্বটা শেষ করতে চান তারা। তার সাফ কথা, আফগানিস্তান সিরিজের আগে কোচ চাই আমরা। বলেছেন, কেউ ঝুলিয়ে রাখলে আমরা তো ঝুলে থাকতে পারব না! অন্য দল কাকে নিচ্ছে, সেদিকেও তাকানোর ব্যাপার নেই। আমরা শেষ ধাপে চলে এসেছি। আশা করছি, এ সপ্তাহে না হলেও আগামী সপ্তাহের শুরুতেই আমরা কোচের নাম জানিয়ে দিতে পারব!

advertisement