advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ভূমধ্যসাগরে আটকা পড়েছেন ৫০৭ অভিবাসী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৫ আগস্ট ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ আগস্ট ২০১৯ ০৯:৩৮
ফাইল ছবি
advertisement

ভূমধ্যসাগরে আটকা পড়ে আছেন ৫০৭ অভিবাসী। তাদের গ্রহণ করতে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংগঠন ইউএনএইচসিআর। আগস্টের শুরু থেকে আটকা পড়ে আছেন তারা। এর মধ্যে কোন কোন দেশের নাগরিক আছেন তা নিশ্চিত করে জানা যায়নি। খবর টেলিগ্রাফের।

ইউএনএইচসিআর এক বিবৃতিতে বলেছে, এদের অনেকেই লিবিয়ায় মারাত্মক নির্যাতন থেকে বেঁচে যাওয়া মানুষ। এ ছাড়া আছেন শরণার্থী তৈরি হচ্ছে যেসব দেশ থেকে সেখানকার মানুষ। তাদের মানবিক সহায়তা প্রয়োজন। এরই মধ্যে অনেকে আন্তর্জাতিক সুরক্ষা পাওয়ার আশা প্রকাশ করেছেন।

ভূমধ্যসাগরবিষয়ক ইউএনএইচসিআরের বিশেষ দূত ভিনসেন্ট কোচেটেল বলেছেন, এটা হলো সময়ের বিরুদ্ধে একটি প্রতিযোগিতা। সামনেই ঝড় সমাগত। এ অবস্থায় এসব অভিবাসীর অবস্থা আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে। লিবিয়ায় যুদ্ধ ও সহিংসতা থেকে পালাতে যেসব মানুষ দেশ ছেড়েছেন এবং এই উত্তাল সময়ে সমুদ্রের মধ্যে রয়েছেন তাদের সামনে দুর্ভোগের পর দুর্ভোগ আসতে পারে। তাদের অবিলম্বে নোঙ্গর করতে দেওয়া উচিত এবং খুব বেশি প্রয়োজনীয় মানবিক সহায়তা পাওয়া উচিত।

২০১৯ সালের শুরু থেকে সমুদ্রপথে ইউরোপে গিয়েছেন মোট ৩৯ হাজার ২৮৯ জন অবৈধ অভিবাসী ও শরণার্থী। আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার মতে, সমুদ্রে এ সময়ে মারা গেছেন ৮৪০ জন। ২০১৪ থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে মারা গেছেন ৩০ হাজার ৫০০ অভিবাসী।

 

advertisement