advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ইট মারলে পাটকেল খাবে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১৫ আগস্ট ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৫ আগস্ট ২০১৯ ১১:১৯
advertisement

কাশ্মীর বিষয়ে ভারতকে কড়া হুশিয়ারি দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। দেশটির স্বাধীনতা দিবসে অধিকৃত আজাদ-কাশ্মীরে দেওয়া ভাষণে তিনি বলেছেন, ভারত যদি ইট ছুড়ে, তা হলে প্রতিটি ইটের বদলা হিসেবে পাটকেল ছুড়বে পাকিস্তান। কাশ্মীরে রাজ্য পরিচয় মুছে দেওয়া এবং দ্বিখ-িত করার যে সিদ্ধান্ত নয়াদিল্লি ঘোষণা করেছে, একে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ‘কৌশলগত মহাভুল’ হিসেবে অভিহিত করেছেন ইমরান। তিনি বলেছেন, কাশ্মীর ইস্যুতে যদি যুদ্ধ বাধে, এর জন্য দায়ী হবে ভারতই। ডন নিউজ।

আজাদ-কাশ্মীরের মুজফফরাবাদে ইমরান বলেন, ‘বিজেপির লোকেরা অসুস্থ মানসিকতার। ভারতকে একটি সহিষ্ণু সমাজ ভাবা হতো আগে, কিন্তু এবার যা করল, তার জন্য ফল ভুগতে হবে।’

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দাবি, কোনো মুসলিম ভারতে নিজের অসুবিধার কথা বললেই, তাকে পাকিস্তান চলে যেতে বলা হচ্ছে। রাষ্ট্রীয় সেবক সংঘ আরএসএসের দৈত্য বোতল থেকে বেরিয়ে এসেছে। তাকে আর বোতলে ফেরানো যাচ্ছে না। ইমরান বলেন, ‘এই মুহূর্তে আরএসএস নামে ভয়ঙ্কর একটি মতবাদ আমাদের সামনে রয়েছে, যারা হিটলারের নাৎসি বাহিনীর আদর্শে অনুপ্রাণিত। আমিই প্রথম বিশ্ববাসীর সামনে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আসল চেহারা তুলে ধরেছি।’

ইমরান বলেন, ‘আরএসএস সদস্যরা মনে করে, মুসলমানরা তাদের ওপর কয়েকশ বছর শাসন করেছে। তাই এখন মুসলমানদের থেকে প্রতিশোধ নিতে হবে। কারণ তারা যদি হিন্দুদের ওপর শাসন না করত, তা হলে তারা একটি শক্তিশালী গোষ্ঠীতে পরিণত হতো। এটিই আরএসএসের মতাদর্শ।’ ইমরান খান বলেন, এমন হিংসাত্মক মনোভাব ও মতাদর্শ নিয়ে বিগত কয়েক দশক আরএসএস বেশ তৎপর হয়েছে। বাবরি মসজিদ ধ্বংস এটির একটি অংশ ছিল। বিগত ৫ বছরে কাশ্মীর নিয়ে ভয়ঙ্কর পরিকল্পনা সাজিয়েছে। কাশ্মীরি জনগণকে আশ্বস্ত করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এখন থেকে আমি স্বাধীন কাশ্মীরের দূত হিসেবে কাজ করব।’

advertisement