advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমছে : সাঈদ খোকন

বাসস
২০ আগস্ট ২০১৯ ১৭:০৬ | আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৯ ১৭:০৬
advertisement

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, এডিস মশার প্রাদুর্ভাব ও ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত নতুন রোগীর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে।

আজ মঙ্গলবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল প্রাঙ্গণ পরিচ্ছন্ন এবং ডেঙ্গুর লার্ভা ধ্বংসের লক্ষ্যে আয়োজিত অভিযানের উদ্বোধনকালে মেয়র এ কথা বলেন।

সাঈদ খোকন বলেন, ‘সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহকে লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন সর্বশক্তি দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। মশার উৎসস্থল ধ্বংসে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে কার্যক্রম চালানোর ফলে এডিস মশার প্রাদুর্ভাব ও ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত নতুন রোগীর সংখ্যা ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে এ অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।’

মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সরকারি সকল সংস্থা ইতিমধ্যেই ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে একযোগে কাজ করছে। আশা করা যায়, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

সাঈদ খোকন বলেন, ইতিমধ্যে ডিএসসিসি’র পক্ষ থেকে ৫৮ হাজার ৭৪৮ বাড়িতে এডিস মশার লার্ভা নিধনে অভিযান চালানো হয়েছে। এগুলোর মধ্যে সহস্রাধিক বাড়িতে এডিসের লার্ভা পাওয়ায় তা ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বাড়ির মালিকদের এ বিষয়ে সচেতন করা হয়েছে। এ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

এডিস মশার লার্ভা ধ্বংস করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ স্কাউটস সদস্যরা ১ লাখ ১১ হাজার বাসাবাড়িতে জরিপ চালিয়ে যেসব বাড়িতে লার্ভা পাওয়া গেছে তা ধ্বংস করাসহ সচেতনমূলক লিফলেট বিতরণ করেছে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাংবাদিক ও কলামিস্ট লেখক আবুল মকসুদ বলেন, ‘ঢাকা মেডিকেল কলেজের আজকের এই পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি একটি প্রতীকী কর্মসূচি। আমি মনে করি, এই প্রতীকী কর্মসূচির মাধ্যমে নগরবাসী পরিচ্ছন্নতা কাজে সম্পৃক্ত হবেন।’

সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে ঢাকা মেডিকেলের নার্সিং ইনস্টিটিউট, ফজলে রাব্বী হল এলাকাতেও পরিচ্ছন্নতা এবং এডিস মশার লার্ভা নিধনে লার্ভিসাইডিং কার্যক্রম চালানো হয়।

অভিযান উদ্বোধনের সময় নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি হিসেবে লেখক কলামিস্ট সৈয়দ আবুল মকসুদ, স্কাউটস ও রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সদস্যগণ, ঢামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ এম নাসির উদ্দিনসহ নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরামের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

advertisement