advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

‘আগ্রহীদের উদ্যোক্তা তৈরিই সরকারের মূল উদ্দেশ্য’

নিজস্ব প্রতিবেদক
২২ আগস্ট ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২২ আগস্ট ২০১৯ ০০:৪৬
advertisement

সারা বাংলাদেশে যাদের উদ্যোক্তা হওয়ার মতো আগ্রহ আছে, তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তোলাই হচ্ছে সরকারের মূল উদ্দেশ্য বলে জানান বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী মো. আমিনুল ইসলাম।

গতকাল রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিডা কার্যালয়ে ‘উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন’ প্রকল্পের দেশব্যাপী প্রচার এবং উদ্যোক্তা সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে প্রেসব্রিফিংয়ে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

কাজী মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উদ্যোগ বিনিয়োগ বিকাশ। এসডিজি ও উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা পূরণে নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও তাদের দক্ষতা উন্নয়নের বিকল্প নেই। এই উদ্যোক্তাদের মাধ্যমেই প্রান্তিক থেকে জাতীয় পর্যায়ে বিনিয়োগ বৃদ্ধি পাবে, আর বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেলে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে। আগের পৃথিবী ছিল শ্রমনির্ভর, আর সামনের পৃথিবী হবে জ্ঞান ও প্রযুক্তিনির্ভর। তাই সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সেভাবেই উদ্যোক্তাদের তৈরি করতে হবে। আমাদের মনে রাখতে হবে, ২০৪১ সালের মধ্যে আমাদের উন্নত বিশ্বের কাতারে দাঁড়াতে হবে, সেই অর্থে সামনে মাত্র ২৩ বছর। সেই লক্ষ্য সামনে রেখে শুধু চাকরিপ্রত্যাশী নয়, চাকরি দেওয়ার লোক সৃষ্টি করতে হবে; এগিয়ে আসতে হবে ইনোভেটিভ বিজনেস আইডিয়া নিয়ে। সমস্ত বাংলাদেশে যাদের উদ্যোক্তা হওয়ার মতো আগ্রহ আছে, তাদের প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তোলাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য।

এই সময়ে প্রকল্প পরিচালক আবুল খায়ের মোহাম্মদ হাফিজুল্লাহ খান বলেন, জেলাপর্যায়ে উদ্যোক্তা তৈরিতে ৯ সদস্যবিশিষ্ট বাছাই কমিটি করা হবে। আর এই বাছাই কমিটির সভাপতি হবেন জেলা প্রশাসকরা। কমিটিতে আরও থাকবেন জেলা বণিক সমিতির সভাপতি, বণিক সমিতি কর্তৃক একজন ব্যবসায়ী, জেলা প্রশাসক কর্তৃক মনোনীত একজন সফল নারী উদ্যোক্তা, একজন সফল ব্যবসায়ী, জেলা কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ, জেলা উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একজন অধ্যক্ষ, জেলা প্রশাসক কর্তৃক মনোনীত জেলার ব্যবসা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের একজন প্রতিনিধি উদ্যোক্তা বাছাই কমিটির সদস্য হবেন এবং বিডা কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত জেলা প্রশিক্ষক হবেন এই কমিটির সদস্য সচিব।

advertisement