advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সাফে শুভ সূচনা বাংলাদেশের

ক্রীড়া প্রতিবেদক
২৪ আগস্ট ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৯ ০১:৩৪
advertisement

জয় দিয়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করেছে বাংলাদেশ। গতকাল ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কল্যাণী স্টেডিয়ামে ভুটানের মুখোমুখি হয় তারা। ম্যাচে ৫-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ বাবুর শিষ্যরা। টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। ভুটানকে উড়িয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়নদের মতোই মিশন শুরু লাল-সবুজের কিশোর ফুটবল যোদ্ধাদের।

ম্যাচের শুরু থেকেই প্রাধান্য বিস্তার করে খেলে বাংলাদেশ। ম্যাচের ১৫ মিনিটে গোলমুখ খোলে বাংলাদেশ। আল আমিনের গোলে এগিয়ে যায় দল (১-০)। মিনিট দুয়েক পর সোনম চোজাং গোল করে ভুটানকে সমতায় ফেরান (১-১)। ২১ মিনিটে আবারও গোলের আনন্দ বাংলাদেশ শিবিরে। গোলদাতা আল মিরাত। বাংলাদেশ এগিয়ে যায় ২-১ ব্যবধানে। প্রথমার্ধে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ চলে সমানতালে। দুদলের আক্রমণভাগের খেলোয়াড়রা প্রতিপক্ষের রক্ষণে কাঁপন ধরান। ৩২ মিনিটে পাপ দর্জির গোলে আবারও সমতায় ফেরে ভুটান (২-২)। তবে প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে শুভ সরকারের গোলে ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিশ্রামে যায় বাংলাদেশ।

প্রথমার্ধে কিছুটা ঢিমেতালে আক্রমণ চালালেও দ্বিতীয়ার্ধে খোলস ছেড়ে বের হয়ে আসে বাংলার কিশোররা। আক্রমণে আক্রমণে ভুটানের রক্ষণভাগকে চাপে রাখে। আক্রমণের সুবিধাও আদায় করে নেয়। প্রথমার্ধে ভুটান গোলের সুযোগ পেলেও দ্বিতীয়ার্ধে বাংলাদেশের সঙ্গে আর পেরে ওঠেনি। উল্টো আরও দুই গোল হজম করে। ৮৩ মিনিটে আল মিরাত নিজের দ্বিতীয় এবং দলের পক্ষে চতুর্থ গোলটি করেন (৪-২)। শেষ মুহূর্তের ইনজুরি টাইমে ইমন ইসলামের গোলে ৫-২ ব্যবধানের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

ভুটান বাধা জয় করলেও আবহাওয়া বেশ ভুগিয়েছে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের। প্রচ- গরমে নাভিশ^াস ওঠার অবস্থা রাকিব, ইমন, আল আমিনদের। তার পরও আবহাওয়াকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বড় জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। এ জয়ে দারুণ খুশি বাংলাদেশের কোচ মোস্তফা আনোয়ার পারভেজ বাবু। ম্যাচ শেষে তিনি জানান, ‘যে কোনো টুর্নামেন্টে জয় দিয়ে শুরু খুবই ভালো দিক। প্রচ- গরমেও ভুটানের বিপক্ষে দারুণ খেলেছে ছেলেরা। বাচ্চাদের জন্য খেলাটা অনেক কষ্টের ছিল। ফলটা ৫-০ হলে আরও ভালো হতো। গোলরক্ষক এবং ডিফেন্স লাইনের কিছু ভুলের জন্য দুটি গোল হজম করতে হয়েছে। ভুলগুলো নিয়ে সামনে কাজ করব। চেষ্টা করব জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে।

গতবার পাকিস্তানকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ গোলে ড্র থাকায় ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকারে। সেখানে বাংলাদেশের গোলরক্ষকের দৃঢ়তায় ৩-২ ব্যবধানে ম্যাচ জিতে শিরোপা আনন্দে মাতে। এবার প্রথম ম্যাচেই গোলরক্ষকের ভুলে গোল হজম করতে হয়েছে। এ ব্যাপারে ম্যাচ শেষে বাংলাদেশের কোচ জানান, ‘টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচ দেখে আসলে সব কিছু নির্ণয় করা যায় না। সামনে আরও ম্যাচ আছে। আজকে (গতকাল) যে পারফরম্যান্স করেছে তাতে আমি সন্তুষ্ট। তা ছাড়া এত গরমে স্বাভাবিক পারফরম্যান্স করা কঠিন ছিল। বাচ্চা ছেলেগুলো চেষ্টা করেছে আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে খেলার। প্রচ- গরমে কিছু খেলোয়াড় পানিশূন্যতায় ভুগেছে। সামনে আশা করি এগুলো কাটিয়ে উঠবে তারা। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ ২৫ আগস্ট। প্রতিপক্ষ শ্রীলংকা।

এদিকে দিনের অপর ম্যাচে শ্রীলংকার মুখোমুখি হয় নেপাল। প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে ৫-০ গোলে হারা নেপাল; এই ম্যাচে লংকানদের ২-০তে উড়িয়ে দেয়। পয়েন্ট টেবিলের যে চিত্র তাতে এক ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে রয়েছে স্বাগতিক ভারত। সমান সংখ্যক ম্যাচে বাংলাদেশের পয়েন্টও সমান। তবে গোলগড়ে পিছিয়ে দ্বিতীয় স্থানে লাল-সবুজদের অবস্থান। ২ ম্যাচে সমান ৩ পয়েন্ট নিয়ে এর পর রয়েছে শ্রীলংকা ও নেপাল। ২ ম্যাচে পয়েন্টশূন্য ভুটান।

advertisement
Evall
advertisement