advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

মায়ের জন্য মধু কিনে ৮২ দিন জেলে

অনলাইন ডেস্ক
২৫ আগস্ট ২০১৯ ২৩:১০ | আপডেট: ২৫ আগস্ট ২০১৯ ২৩:১০
advertisement

মা মধু পছন্দ করেন। তাই ছেলে মধু নিয়ে মায়ের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছিলেন। পথে বাধে বিপত্তি। বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা তার মধুর বোতল নিয়ে ধন্দে পড়েন, যে কারণে ৮২ দিন জেলে কাটাতে হয়েছে লিওন হউটন নামে এক ব্যক্তিকে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম ওয়াশিংটান পোস্ট তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, লিওন হউটন নামে ওই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের জামাইকা থেকে মায়ের জন্য তিন বোতল মধু নিয়ে মেরিল্যান্ডে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন। ১ বছর পর পর মায়ের সঙ্গে দেখা হয় তাই মধুর বোতলগুলো কিনেছিলেন তিনি। কিন্তু বিপত্তি বাধে বাল্টিমোর-ওয়াশিংটন থুরগুড মার্শাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে।

গত বছরের ২৯ ডিসেম্বর যাত্রাপথে সেখানকার কর্মকর্তারা লিওনকে গ্রেপ্তার করে। কারণ হিসেবে তারা বলে, বোতলগুলোতে মেটামফেটামাইন একপ্রকার পার্টি ড্রাগ পাওয়া গেছে। এই মাদক কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের উপর ক্রিয়া করে। কিন্তু এক সপ্তাহ পর বোতলের তরল পরীক্ষা করে জানা গেল ওই তরল মেটামফেটামাইন নয়। তারপরও ছাড়া হয়নি লিওনকে। আবারও পরীক্ষা করা হয় বোতলের তরলগুলো। পুলিশ জানায় বোতলে মধু ছাড়া অন্য কোনো তরলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়নি।

এ ঘটনায় চাকরি থেকে বরখাস্ত হন লিওন হউটন। তার স্ত্রী ও ছয় সন্তানকে সামাজিকভাবে হেয় হতে হয়েছিল।

৪৫ বছরের হউটন ক্ষোভ প্রকাশ করে গণমাধ্যমগুলোতে বলেন, ‘ওরা আমার জীবন তছনছ করে দিয়েছে। আমি সারা বিশ্বকে জানাতে চাই যে এই ব্যবস্থাপনায় কতটা গলদ আছে। আমার চারপাশের মানুষদের যদি প্রবল মানসিক জোর না থাকত তাহলে তারা আমাকে ছেড়ে চলে যেতেন।’

৮২ দিন পর জেল থেকে বের হয়ে মায়ের দেখা তিনি পেয়েছেন। মধুর বোতলগুলোও তুলে দিয়েছেন তার হাতে। কিন্তু সংসার, স্ত্রী-সন্তানদের খরচ চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন তিনি।

advertisement