advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

নিউইয়র্কে দুর্বৃত্তের গুলিতে বাংলাদেশি যুবক নিহত

কৌশলী ইমা
৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:১৬ | আপডেট: ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৩:২৫
শাহেদ উদ্দিন
advertisement

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে দুর্বৃত্তের গুলিতে মো. শাহেদ উদ্দিন (২৭) নামে এক বাংলাদেশি যুবক প্রাণ হারিয়েছেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি বাবর উদ্দিনের ছেলে। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় সোমবার ভোরে রিচমন্ডহিল এলাকার ১৩০ স্ট্রিট ও ৯২ অ্যাভিনিউয়ে হামলার এ ঘটনা ঘটে।
জ্যামাইকার একটি নাইটক্লাবের সামনে ওই হামলায় তার সঙ্গে আরও দুজন আহত হয়েছেন। তাদের একজন বাংলাদেশের সিলেটের, অন্যজন অবাঙালি।
নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের এক মুখপাত্র গণমাধ্যমকে বলেন, নাইটক্লাবের সামনে বিবাদমান দুপক্ষের ঝগড়ার একপর্যায়ে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে।
বুকে গুলিবিদ্ধ শাহেদকে জ্যামাইকা হাসপাতালে নেওয়া হলেও তাকে বাঁচানো যায়নি। পায়ে ও পিঠে গুলিবিদ্ধ অন্য দুজন ওই হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
ময়নাতদন্ত শেষে মঙ্গলবার শাহেদের লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে পুলিশ জানিয়েছে। তাকে নিউজার্সিতে সন্দ্বীপ সোসাইটির কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে দুর্বৃত্তদের ধরতে পুলিশ এলাকাবাসীর সহযোগিতা চেয়েছে।
সন্দ্বীপের সন্তান বাবর উদ্দিনের কনস্ট্রাকশন ব্যবসা দেখাশোনা করতেন

শাহেদ। তিনি ছিলেন ৫ ভাইয়ের দ্বিতীয়। ৫ বছর আগে ওই এলাকার একটি নাইটক্লাবের সামনে পিটিয়ে হত্যা করা হয় যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতা নজমুল ইসলামকে। তার ঘাতকদের বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি হয়েছে।

 

advertisement