advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বারবার অপমানিত হয়েছেন সোনাক্ষী!

বিনোদন ডেস্ক
১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০৯:২৭ | আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১২:৪২
বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা (ফাইল ছবি)
advertisement

বলিউডে নেপোটিজম বা বংশীয় আধিপত্যে অভিনয়ের সুযোগ আগেও যেমন ছিল, এখনো তেমনই আছে। এ বিষয়টি নিয়ে সবচেয়ে বেশি সরব ছিলেন বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। করণ জহর, সঞ্জয় লীলা বানশালিসহ বলিউডের একাধিক পরিচালক নেপোটিজমকে সবসময় প্রশ্রয় দেন অভিযোগ করেন তিনি। তবে শত্রুঘ্ন সিনহার মেয়ে সোনাক্ষী সিনহা শোনালেন ভিন্ন কথা।

তার দাবি, বলিউডের শক্তিশালী অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহার মেয়ে হয়েও তিনি সহজেই অভিনয়ের সুযোগ পাননি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজ জানায়, সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে এমনটি জানিয়েছেন সোনাক্ষী। তিনি জানান, তিনি ছোটকাল থেকেই অনেক মোটা ছিলেন। তার ওজন ছিল কমপক্ষে ৯০ কেজি। আর এই ওজনের জন্য স্কুল, কলেজসহ সব জায়গাতেই ব্যঙ্গ, বিদ্রুপের শিকার হতেন তিনি।

অতিরিক্ত ওজনের জন্য স্কুলে তাকে নিয়ে মিম তৈরি করা হতো বলেও জানান ‘দাবাং’ খ্যাত এই অভিনেত্রী।

পুরোনো সেই তিক্ত অভিজ্ঞতার কথা তুলে ধরে সোনাক্ষী জানান, কলেজে একবার তিনি র‌্যাম্পে হাঁটার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। সে সময় তাকে র‌্যাম্পের পাশে আলো নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হবে বলে কটাক্ষ করেন তারই এক সহপাঠী। তিনি মোটা বলে র‌্যাম্পে হাঁটার যোগ্য নন বলেও কটাক্ষ করা হয়। সেই ঘটনায় অনেক কষ্ট পেয়েছিলেন বলেও জানান তিনি।

সেই অপমান থেকে ওজন কমানো শুরু করেন সোনাক্ষী সিনহা। এর পরই তিনি ওজন কমিয়ে বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের বিপরীতে ‘দাবাং’ ছবিতে অভিনয় করেন। ছবিটি সুপারডুপার হিট হলে তারকা খ্যাতি পান সোনাক্ষী।

এর পর আবার ওজন বাড়লেও তাকে কটাক্ষের সম্মুখীন হতে হয়। ফলে আবার ওজন কমানো শুরু করেন তিনি।

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে সোনাক্ষী সিনহা অভিনীত 'মিশন মঙ্গল'। বর্তমানে তিনি ‘দাবাং থ্রি’র শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। বরাবরের মতোই ‘দাবাং’ সিরিজে তার বিপরীতে রয়েছেন সালমান খান। ছবিটি পরিচালনা করবেন প্রভু দেবা।

advertisement