advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

টিআইবির প্রতিবেদন পুরোটা সমর্থন করি না

নিজস্ব প্রতিবেদক
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০৩
advertisement

ভূমির দলিল নিবন্ধনে দুর্নীতির কথা স্বীকার করলেও ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) গবেষণা প্রতিবেদনে তুলে ধরা এ খাতের সব অনিয়মের বিষয়ে একমত নন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। গতকাল সচিবালয়ে এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ভূমিমন্ত্রী বলেন, টিআইবির রিপোর্টকে পুরোটা ওভাবে সমর্থন করতে পারছি না। ভূমি অফিসের

জটিলতা ও সমস্যা দূর করার ক্ষেত্রে বেশ কিছু উন্নতি হয়েছে দাবি করে ভূমিমন্ত্রী বলেন, টিআইবির রিপোর্টটা কখনকার বেইজ ধরে করেছে, সেটি কিন্তু তারা উল্লেখ করেনি। ভূমি নিবন্ধনের যে বিষয়টি তারা উল্লেখ করেছে, সেখানেই সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে। কিন্তু ভূমি নিবন্ধন ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে না, আইন মন্ত্রণালয়ের অধীনে।

প্রসঙ্গত একসময় আইন ও ভূমি বিষয়ে একটিই মন্ত্রণালয় ছিল। তার অধীনে ছিল ভূমি নিবন্ধন কার্যালয়। পরে দুটি মন্ত্রণালয় আলাদা হলেও ভূমি নিবন্ধন কার্যালয় আইন মন্ত্রণালয়ের অধীনেই থেকে যায়।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, টিআইবির কথা একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছি না। তবে তারা যেসব সমস্যা তুলে ধরেছে, তার অনেক কিন্তু আমরা উন্নয়ন করেছি। এ উন্নয়নটা আমাদের অব্যাহত রয়েছে। অনলাইন ডাটাবেজে খতিয়ান আপলোড করায় মানুষকে এখন আর হয়রানি পোহাতে হয় না।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এ পর্যন্ত ৫০ জনেরও বেশি ভূমি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি টিআইবি ‘ভূমি দলিল নিবন্ধন সেবায় সুশাসনের চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায়’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে ভূমি নিবন্ধন সেবায় অনিয়ম-দুর্নীতি তুলে ধরে।

advertisement