advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

বাংলাদেশের আক্ষেপ

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০৪
advertisement

হার দিয়ে ২০২২ কাতার বিশ^কাপ এবং ২০২৩ এশিয়ান কাপ বাছাইপর্ব মিশন শুরু করেছে বাংলাদেশ। পরশু তাজিকিস্তানের রাজধানী দুশানবেতে আফগানিস্তানের মুখোমুখি হয় জেমি ডের দল। ম্যাচে ১-০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয় বাংলাদেশ। আফগানদের হয়ে ম্যাচের একমাত্র জয়সূচক গোলটি করেন অধিনায়ক ফারশাদ নুর।

শক্তির বিচারে আফগানদের চেয়ে যোজন যোজন পিছিয়ে বাংলাদেশ। ম্যাচে সেটি ভালোভাবেই ফুটে উঠেছে। যদিও গোল ব্যবধান বেশি নয়। তার পরও পুরো ম্যাচে দাপটে খেলেছেন আফগানরা। জীবন, সুফিল, জামাল, বিপলুরা নিজেদের দখলে বল রাখতে পেরেছেন খুবই কম। পরাজয়ের ব্যবধান আরও বাড়ত যদি না গোলরক্ষক আশরাফুল রানা আফগানদের বাধার দেয়াল হয়ে না দাঁড়াত। তার পরও শেষরক্ষা হয়নি। ২৭ মিনিটে আফগান অধিনায়কের হেড ঠিকই জাল খুঁজে নেয় (১-০)।

দুই অর্ধ মিলে বল পজিশনে পরিষ্কার ব্যবধানে এগিয়ে ছিল আফগানিস্তান। তার পরও শেষ দিকে গোল শোধের একটি সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। নাবীব নেওয়াজ জীবনের ভুলে হেলায় হারায় সেই সুযোগ। তবে গোলটি না হওয়ার পেছনে কিছুটা দায় রেফারির ওপরও বর্তায়। ডি-বক্সের মধ্যে জীবনকে অবৈধভাবে ফেলে দেন আফগান ডিফেন্ডার। রেফারির চোখ এড়িয়ে যাওয়ায় পেনাল্টির সুযোগ হারায় বাংলাদেশ। ম্যাচশেষে এ নিয়ে আফসোসে পুড়তে দেখা গেছে বাংলাদেশ শিবিরে। জীবন প্রথম চেষ্টায় গোলবারে শট নিলে ম্যাচের ফল অন্যরকমও হতে পারত!

ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে ৩৩ ধাপ এগিয়ে আফগানরা। পূর্ব রেকর্ডও তার দখলে। সবশেষ দেখাতেও বাংলাদেশকে ৪-০ গোলে পরাজয়ের লজ্জা উপহার দিয়েছিল দলটি। গতবারের চেয়ে এবার ব্যবধান খানিকটা কমেছে সান্ত¡না কেবল এতটুকুই।

advertisement