advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

৩২ মাস আগের অবস্থানে শেয়ারবাজারের সূচক

নিজস্ব প্রতিবেদক
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০৫
advertisement

বড় পতনে শেয়ারবাজারের লেনদেন শেষ হয়েছে গতকাল বুধবার। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ৭৬ পয়েন্ট কমে দুই বছর সাড়ে আট মাস আগের অবস্থানে নেমেছে। ব্যাংক, বীমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মতো মৌলভিত্তিক কোম্পানির দর হারানোর দিনে দেশের উভয় শেয়ারবাজারেই শেয়ার বিক্রির চাপ বেশি ছিল। তবে ন্যাশনাল টিউবের মতো রাষ্ট্রায়ত্ত কোম্পানির দর ও লেনদেন বৃদ্ধিতে সূচকের ইতিবাচক প্রবণতা থাকলেও অন্যান্য কোম্পানির দর কমার কারণে সূচকের বড় পতন ঘটে। ডিএসইর সঙ্গে গতকাল চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেরও (সিএসই) সব সূচক কমেছে। একই সঙ্গে কমেছে লেনদেনে অংশ নেওয়া বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর। তবে এদিন সিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন কমলেও ডিএসইতে বেড়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স গতকাল ৭৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৯৩৩ পয়েন্টে। ডিএসইর এ সূচকটি দুই বছর ৮ মাস ২০ দিন বা ৬৬৭ কার্যদিবসের মধ্যে সর্বনিম্নে নেমে গেছে। এর আগে ২০১৬ সালের ২১ ডিসেম্বর ডিএসইএক্স সূচক বুধবারের থেকে কম স্থানে অবস্থান করছিল। ওই দিন ডিএসইএক্স সূচক ছিল ৪ হাজার ৯২৪ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৪ পয়েন্ট ও ডিএসই-৩০ সূচক ২২ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১ হাজার ১৫৫ ও ১ হাজার ৭৩৬ পয়েন্টে। এ দিন ডিএসইতে ৫০২ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪০৭ কোটি ৩ লাখ টাকার। অর্থাৎ ডিএসইতে গতকাল লেনদেন ৯৫ কোটি ৩৯ লাখ টাকা বেশি হয়েছে। ডিএসইতে ৩৫৩টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৩৭টির বা ১০ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। কমেছে ২৮৮টির বা ৮২ শতাংশের। ২৮টি বা ৮ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে। টাকার অংকে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল টিউবসের। এ দিন কোম্পানিটির ২৬ কোটি ৮৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসা জেএমআই সিরিঞ্জের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ২৪ কোটি ৮৯ লাখ টাকার। ২৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে আসে বিকন ফার্মা। লেনদেনে শীর্ষ দশে থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে- মুন্নু সিরামিক, স্টাইলক্রাফট, মুন্নু জুট স্টাফলার্স, ভিএফএস থ্রেড ডাইং, ওয়াটা কেমিক্যাল, আইপিডিসি ও স্কয়ার ফার্মা।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ২৩৫ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৯৯৩ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৬১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৩৬টির, কমেছে ২০৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৭টির। শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে ১৪ কোটি ৫৭ লাখ টাকার।

পিপলস লিজিংয়ের লেনদেন বন্ধের সময় আরও একদফা বাড়ল : শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত আর্থিক খাতের পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেডের শেয়ার লেনদেন বন্ধের মেয়াদ আরও একদফা বাড়ানো হয়েছে। ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, তাদের পরিচালনা পর্ষদ কোম্পানিটির শেয়ার লেনদেন আরও ১৫ দিন বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

advertisement