advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

ঢাবির ‘গ’ ইউনিটের পরীক্ষা কাল, মাঠে থাকবে ছাত্রলীগ

ঢাবি প্রতিবেদক
১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৭:১৮ | আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৯:৫৯
পুরোনো ছবি
advertisement

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের অধীনে প্রথমবর্ষে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার। ‘গ’ ইউনিটের মধ্য দিয়ে শুরু হতে যাচ্ছে নতুন শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা। এছাড়া চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হবে আগামী শনিবার।

আজ বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। সকাল ১০টা থেকে সাড়ে এগারোটা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ‘গ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মোট ৫৬টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। এ বছর ‘গ’ ইউনিটে এক হাজার ২৫০টি আসনের বিপরীতে ২৯ হাজার ৫৮জন ভর্তিচ্ছু আবেদন করেছে। অর্থাৎ প্রতিটি আসনের জন্য ২৩ জনের বেশি প্রার্থী লড়বেন।

এছাড়াও ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের অধীনে প্রথম বর্ষে সাধারণ জ্ঞান অংশের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে শনিবার। সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত চারুকলা অনুষদসহ ক্যাম্পাসের মোট ১৯টি কেন্দ্রে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এই ইউনিটে ১৩৫ আসনের বিপরীতে ১৬ হাজার একজন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে।

এ বছরই প্রথম ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষার পাশাপাশি লিখিত পরীক্ষাও দিতে হবে। মোট ১২০ নম্বরের মধ্যে এমসিকিউয়ের জন্য থাকবে ৭৫ নম্বর ও লিখিত পরীক্ষার জন্য থাকবে ৪৫ নম্বর। ৯০ মিনিটের পরীক্ষায় এমসিকিউ অংশের জন্য সময় নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০ মিনিট ও লিখিত পরীক্ষার জন্য ৪০ মিনিট। তবে চ-ইউনিটে ৫০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষার জন্য এক ঘণ্টা এবং ৭০ নম্বরের অংকন পরীক্ষায় ৯০ মিনিট বরাদ্দ করা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হলে প্রার্থীকে নৈর্ব্যক্তিক অংশে ৩০ এবং লিখিত অংশে ১২ নম্বরসহ মোট ৪৮ নম্বর পেতে হবে। বিষয়ভিত্তিকভাবেও পরীক্ষার্থীদের পাস করতে হবে।

শিক্ষার্থীদের সার্বিক সহযোগিতায় মাঠে থাকবে ছাত্রলীগ

এদিকে নতুন শিক্ষাবর্ষে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সার্বিক সহযোগিতায় মাঠে থাকার ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রলীগ। থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা, নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষার হলে পৌছে দেওয়া, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, নিরাপদ পানি সরবরাহসহ নানা প্রস্তুতি নিয়েছে ছাত্রলীগ।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব প্রস্তুতির কথা জানান বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন। প্রয়োজনে বিভিন্ন হলের ছাত্র নেতাদের সিঙ্গেল রুমে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের থাকার ব্যবস্থা করার কথা জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি সন্জিত চন্দ্র দাস।

ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় গৃহীত পদক্ষেপ

পরীক্ষার পূর্বের রাতে হলগুলোতে থাকার সুব্যবস্থা, যাতায়াতের জন্য জয় বাংলা বাইক সার্ভিস, পরীক্ষা কেন্দ্র পরিচিতির জন্য দিক নির্দেশক চিহ্ন ও সার্বক্ষণিক স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত রাখা, সুপেয় খাবার পানির ব্যবস্থা, কলম ও আনুষঙ্গিক শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, শিক্ষার্থীদের ব্যবহৃত অথচ পরীক্ষা কেন্দ্রে নেয়ার অনুপযোগী জিনিসপত্র রাখার ব্যবস্থা, বিভিন্ন পয়েন্টে স্থায়ী তথ্য কেন্দ্র থেকে প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ করা, প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য হুইলচেয়ার ও প্রয়োজনীয় লজিস্টিক সরবরাহ করা, শিক্ষার্থীদের সাথে আগত অভিভাবকের বিশ্রামের জন্য চেয়ার হাতপাখা ও খাবার পানির ব্যবস্থা, হটলাইনের মাধ্যমে যেকোনো প্রয়োজনে তাৎক্ষণিক সেবা প্রদানের ব্যবস্থা করা হবে।

advertisement