advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

কলেজে বোরকা নিষিদ্ধ করলো কর্তৃপক্ষ

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২১:২৫
আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ২২:০৪
প্রতীকী ছবি
advertisement

বোরকা পরে কলেজে ঢোকার মুখে বিপদে পড়েছিলেন এক ছাত্রী। তাকে বলা হয়, কলেজে ঢুকলে বোরকা খুলে ঢুকতে হবে। এনিয়ে কথা কাটাকাটি, হাতাহাতিও হয়। শেষ পর্যন্ত ওই কলেজে পরিধেয় বস্ত্রটিকেই নিষিদ্ধ করেছে কর্তৃপক্ষ।

ভারতের উত্তরপ্রদেশের ফিরোজাবাদ জেলার এসআরকে কলেজে ঘটেছে এ ঘটনা। দেশটির সংবাদমাধ্যম ‘এই সময়’ তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বোরকা নিয়ে হওয়া ঘটনার জের ধরে এই সিদ্ধান্ত নেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ।

তবে এসআরকে কলেজের কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, হিজাব বা বোরখা পরে ছাত্রী বা তাদের সঙ্গে আসা অন্য নারীরা আশে পাশে থাকতে পারবেন। তবে কলেজে আসা চলবে না।

কিছুদিন আগে এক ছাত্রীকে বোরকা খুলে কলেজে ঢুকতে বলে স্থানীয় ছাত্ররা। বিষয়টি নিয়ে আরেক দলের সঙ্গে তাদের ব্যাপক হাতাহাতি হয়। কোটলা রোডের কলেজটিতে পাথর ছোড়াছুড়িও হয় ছাত্রদের মধ্যে। যে কারণে কলেজ থেকেই ছাত্র-ছাত্রীদের ড্রেস কোড ঠিক করে দেওয়া হয়।

কলেজ কর্তৃপক্ষ এ ঘোষণায় জানিয়েছে, ‘এই ড্রেস কোড যারা পরে আসবে না, কলেজের গেটেই তাদের আটকানো হবে।’ বিষয়টি নিয়ে তীব্র নিন্দা জানিয়েছে কলেজের মুসলিম ছাত্রীরা। তাদের দাবি, কলেজের এই নিয়ম যেন তাদের জন্য না বর্তায়। নিয়ম পরিবর্তন না হলে প্রতিবাদও করবেন তারা।

এদিকে ছাত্রদের মারামারির ঘটনায় তিন জনকে আটক করে পুলিশ। তবুও কলেজের কিছু স্থানীয় ছাত্র মুসলিম ছাত্রীরা যেন বোরকা পরে না আসে এমন হুমকি দিচ্ছে।

advertisement