advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

প্রয়োজনে ওসিগিরি করব : ডিএমপি কমিশনার

১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:৫২
আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:৫২
advertisement

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) নবনিযুক্ত কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, অসহায় মানুষগুলো থানায় গিয়ে যাতে হয়রানি ছাড়াই সেবা নিতে পারে, সে জন্য সব ওসি, ডিসিদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ডিএমপির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়েছি যেন তারা থানায় বসে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি বলেন, থানাকে জনমুখী করতে প্রয়োজনে আমি নিজেই থানায় গিয়ে ওসিগিরি করব। গতকাল ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে কমিশনার এসব কথা বলেন। এ সময় ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার মো. মনিরুল ইসলাম, মীর রেজাউল আলম, কৃষ্ণপদ রায় ও আবদুুল বাতেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই মহানগরের প্রতিটি থানায় পুলিশি সেবা ও আচরণ নিয়ে কথা বলেন মোহা. শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে কাজ করে যাব। সবচেয়ে বেশি নজর দিতে চাই থানায়; সাধারণ মানুষের সঙ্গে পুলিশ যাতে কাক্সিক্ষত আচরণ করে। সাধারণ মানুষ যেন পুলিশভীতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারে। মানুষকে যাতে চাঁদাবাজির শিকার না হতে হয়।
ওসিরা ঘুরেফিরে ঢাকাতেই থাকছেনÑ সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে কমিশনার বলেন, মানুষের সেবা যাতে অব্যাহত থাকে সেটি দেখা আমার দায়িত্ব। ওসিরা একটি থানায় ভালো করলে অন্য থানায় পোস্টিং দেওয়া দোষের নয়। তবে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন, অভিজ্ঞতা না থাকলে ডিএমপিতে কাজ করা যায় না।
মহানগরের ট্রাফিক ব্যবস্থা নিয়ে মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, ডিএমপি কমিশনার হওয়ার পর ট্রাফিকের জোনাল অফিসারদের সঙ্গে কথা বলেছি। অফিস শুরু ও ছুটির সময় ট্রাফিক বিভাগের সিনিয়র সব অফিসারকে মাঠে থাকার নির্দেশনা দিয়েছি। শুধু সার্জেন্টরা মাঠে থাকলে হবে না। নির্দিষ্ট পয়েন্টে সবাইকে ডিউটি করতে হবে। আর ট্রাফিক ব্যবস্থা মনিটর করার জন্য সিনিয়ররা মাঠে থাকবেন।
রাজনৈতিকভাবে পুলিশকে ব্যবহার করা হচ্ছে কিনাÑ এমন প্রশ্নে ডিএমপি কমিশনার বলেন, রাজনৈতিক পরিচয় দেখে কখন কে কী করেছে বলুন, কখন কী করা হয়েছে বলুন? পুলিশ আইনের মধ্যে থেকেই কাজ করে।

advertisement
Evall
advertisement