advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

টিআইবির বিবৃতি অবমাননাকর : বেক্সিমকো

১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:৫৩
আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০১:৫৩
advertisement

বেক্সিমকো গ্রুপের ঋণ পুনঃতফসিলিকরণের সিদ্ধান্তের খবরে কোম্পানির ভাইস চেয়ারম্যান সংসদ সদস্য সালমান এফ রহমানকে ইঙ্গিত করে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) যে বিবৃতি দিয়েছে, তাকে ‘অবমাননাকর’ বলে প্রতিবাদ জানিয়েছে বেক্সিমকো। গতকাল রবিবার বেক্সিমকো চেয়ারম্যান সোহেল এফ রহমান টিআইবি চেয়ারপারসন সুলতানা কামালকে দেওয়া এক চিঠিতে এই প্রতিবাদ জানান। সকালে ধানম-িতে টিআইবির কার্যালয়ে গিয়ে ওই চিঠি হস্তান্তর করেন বেক্সিমকো গ্রুপের পরিচালক ওসমান কায়সার চৌধুরী।
চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, বেশ কিছু আপত্তিকর অভিযোগের পাশাপাশি ডেইলি স্টারে ‘ঋণ পুনঃতফসিলিকরণের সুবিধা গ্রহণের মাধ্যমে একদল লুটেরা আইনপ্রণেতা হওয়ার সুযোগ পেয়ে গেছে’ শিরোনামে টিআইবির নির্বাহী পরিচালকের একটি উদ্ধৃতি প্রকাশ হয়েছে। টিআইবির নির্বাহী পরিচালকের ওই ‘লুটেরা’ সম্বোধনে অত্যন্ত অপমানিত বোধ করার কথা জানিয়েছেন বেক্সিমকো চেয়ারম্যান।


এতে আরও বলা হয়, বিএনপি সরকারের সময় এবং পরে সামরিক বাহিনী সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে বেক্সিমকো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত চরম বৈষম্যমূলক আচরণের শিকার হয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর গত ১১ বছরে বেক্সিমকো বিভিন্ন ব্যাংকে প্রায় ৬ হাজার কোটি টাকা পরিশোধ করেছে।
সোহেল এফ রহমান লিখেছেন, প্রথমবার তাদের ঋণ পুনঃতফসিলিকরণের অনুমোদন পাওয়ার আগে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী একটি স্বাধীন ও অনুমোদিত অডিট ফার্মকে দিয়ে বেক্সিমকোর সম্ভাব্য অর্থ প্রবাহ নিরীক্ষা করা হয়েছিল। ওই অডিট ফার্ম জানিয়েছিল, পুরো ঋণ পরিশোধ করতে বেক্সিমকোর ১২ বছর সময় লাগতে পারে।

advertisement
Evall
advertisement