advertisement
Azuba
advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

টি-টোয়েন্টি দলে চমক

ক্রীড়া প্রতিবেদক
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:০০ | আপডেট: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ০০:৩৫
বাঁ থেকে নাজমুল হোসেন শান্ত, মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লব
advertisement

ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের তৃতীয় ও চতুর্থ ম্যাচ চট্টগ্রামে খেলবে বাংলাদেশ। আগামী ১৮ ও ২১ সেপ্টেম্বর জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে এ ম্যাচ দুটি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দারুণ জয়ে সিরিজে শুভসূচনা করেন স্বাগতিকরা। কিন্তু নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচেই আফগানিস্তানের কাছে বাজে ভাবে হেরেছেন সাকিবরা। এ হারের পর দলে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে।

চট্টগ্রামের দুই ম্যাচের জন্য বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলে নেওয়া হয়েছে তিন নতুন ক্রিকেটারকে। প্রথমবারের জাতীয় টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা পেয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত, মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। দলে ফিরেছেন দুই পেসার রুবেল হোসেন ও শফিউল ইসলাম। তবে দল থেকে বাদ পড়েছেন সৌম্য সরকার, মেহেদী হাসান ও ইয়াসিন আরাফাত মিশু।

সৌম্যের ব্যাটে রান নেই। বিশ্বকাপ ভালো কাটেনি। কোনো ম্যাচেই পাননি ফিফটির দেখা। শ্রীলংকা সফরে গিয়ে ৬৯ রানের একটি ইনিংসই তার পুঁজি। চট্টগ্রামে আফগানদের কাছে হারের ম্যাচেও হাসেনি তার ব্যাট। এবার ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে তার রান ৪ ও ০। ফর্মহীনতায় দল থেকে সৌম্যের বাদ পড়াটা প্রাসঙ্গিক হলেও দলে চমক হয়ে এসেছেন নাজমুল, নাঈম ও আমিনুল। তিনজনই বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে অভিষেকের অপেক্ষায়। সৌম্যের জায়গায় নেওয়া হয়েছে নাঈমকে। ত্রিদেশীয় সিরিজের আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে খেলেছিলেন তিনি। ১৪ বলে ১৩ রান করেন। এর আগে গত জুলাইয়ে আফগান্তিান ‘এ’ দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে খেলেন। শ্রীলংকা ইমার্জিং দলের বিপক্ষেও খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্যাটিংয়ে আলো ছড়ান নাঈম। গত মৌসুমে রূপগঞ্জের হয়ে ৫৫৬ রান করেছিলেন। স্ট্রাইক রেট ছিল ৮২। মাত্র সাতটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। অন্যদিকে একেবারেই আনকোরা আমিনুল। আফগানিস্তান ‘এ’ দলের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে খেলেছিলেন ১৯ বছর বয়সী এ ক্রিকেটার। ২ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ২২ রান করেন। এর পর শ্রীলংকা ইমার্জিং দলের বিপক্ষেও খেলেছেন। তবে সেখানে লেগ স্পিনার হিসেবে খেলেন। তিন ম্যাচে পান ৩ উইকেট। অন্যদিকে বাংলাদেশের জার্সি গায়ে দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলা শান্তও টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা করে নিয়েছেন। বিপিএল কিংবা ঘরোয়া টি-টোয়েন্টিতেও তার পারফরম্যান্স ততটা উজ্জ্বল নয়। আগে ভালো করতে না পারায় জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েছিলেন শান্ত। এ ছাড়া অভিজ্ঞ রুবেল হোসেন গত বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিলেন। ২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছিলেন শফিউল ইসলাম।

ইনজুরির কারণে দল থেকে বাদ পড়েছেন নবীন ইয়াসিন আরাফাত। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে হঠাৎ করেই আবু হায়দার রনিকে যোগ করা হলেও খেলানো হয়নি। এবার দল থেকেও বাদ পড়েছেন রনি। আফগানদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতেও হতাশায় পুড়েছে দল। নতুন ক্রিকেটারদের দলে নেওয়া হলেও খেলানো হচ্ছে না। ড্রেসিংরুমে কাটছে সময়। এবার দলে আবারও পরিবর্তন এসেছে। দলে নেওয়া হয়েছে নতুন বেশ কজনকে। তারা শেষ পর্যন্ত একাদশে সুযোগ পাবেন কিনা সেটি এখন দেখার বিষয়।

বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দল : সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, লিটন কুমার দাস, আফিফ হোসেন, তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, শফিউল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মোহাম্মদ নাঈম শেখ, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, নাজমুল হোসেন শান্ত।

advertisement