advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

পাকিস্তানের হয়ে ক্ষমা চাইলেন ওয়াসিম

অনলাইন ডেস্ক
১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৬:৪১ | আপডেট: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৬:৪১
পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম। ছবি : সংগৃহীত
advertisement

বাংলাদেশের তিরন্দাজ রোমান সানা ও পাকিস্তানের মুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মদ ওয়াসিমের ঘটনা অনেকটা একই। সম্প্রতি এশিয়া কাপে ব্যক্তিগত ইভেন্টে সোনা জিতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে দেশের মুখ উজ্জ্বল করেন রোমান। কিন্তু তার এ সাফল্য নিয়ে দেশের মানুষের মধ্যে শোরগোল ছিল খুব কমই। অন্তত চলতি ত্রিদেশীয় সিরিজ নিয়ে মাতামাতির তুলনায় তো একদমই নয়।

একইভাবে পাকিস্তানের মুষ্টিযোদ্ধা মোহাম্মদ ওয়াসিমও সম্প্রতি সাফল্য তুলে নেওয়ার পর দেশের মানুষের কাছ থেকে তেমন একটা সাড়া পাননি। এ জন্য গোটা পাকিস্তানের পক্ষ থেকেই মুষ্টিযোদ্ধা ওয়াসিমের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন দেশটির কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম।

মোহাম্মদ ওয়াসিম পাকিস্তানের পেশাদার মুষ্টিযোদ্ধা। তিনি ফ্লাইওয়েট পর্যায়ে লড়ে থাকেন। ৩২ বছর বয়সী এ মুষ্টিযোদ্ধা পেশাদার পর্যায়ে এ পর্যন্ত ১০টি লড়াইয়ের মধ্যে নয়টিতেই জিতেছেন। এর মধ্যে সাতটি লড়াইয়ে প্রতিপক্ষকে নক আউট করেছেন।

গেল সপ্তাহে দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত এক টুর্নামেন্টে ফিলিপাইনের মুষ্টিযোদ্ধা কনরাডো তানামোরকে প্রথম রাউন্ডে মাত্র ৮২ সেকেন্ডের মধ্যে নক আউট করেন ওয়াসিম। কিন্তু এ নিয়ে পাকিস্তানে তেমন কোনো মাতামাতি হয়নি। এমনকি দেশে ফেরার পর বিমানবন্দরে সেভাবে অভ্যর্থনাও জানানো হয়নি ‘ফ্যালকন’ নামে খ্যাত এ মুষ্টিযোদ্ধাকে।

বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে টুইটারে এ মুষ্টিযোদ্ধা লেখেন, ‘বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা পেতে আমি লড়াই করছি না। পুরো বিশ্বে পাকিস্তান যেন সমাদৃত হয় আমি সে জন্য লড়াই করছি। পাকিস্তানে কত ভালো মুষ্টিযোদ্ধা রয়েছে তা বিশ্বকে দেখাতে প্রতিটি লড়াই, প্রতিটি ক্যাম্প, প্রতিটি অনুশীলনই আমার জন্য সুযোগ।’

নিজ দেশের মুষ্টিযোদ্ধা ওয়াসিমের কথায় সমর্থন জানিয়ে টুইট করেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম। ক্রিকেট ইতিহাসে তর্কযোগ্যভাবে সর্বকালের সেরা এই বাঁহাতি পেসার মোহাম্মদ ওয়াসিমের টুইটের লিংক জুড়ে দিয়ে তার টুইটারে লেখেন, ‘পাকিস্তানের পক্ষ থেকে আমি ক্ষমা চাচ্ছি। কিছু সময় আসে যখন বাস্তবতার বজ্রমুষ্টি দিয়ে দেশের মুখে ঘুষি মেরে সবাইকে জাগাতে হয় এবং মনে করিয়ে দিতে হয় আমাদের দেশের নায়কদের কেমন সম্মান করা উচিত। এরপর বিমানবন্দরে আপনাকে আমি নিজে অভ্যর্থনা জানাব। জয়ের জন্য অনেক অনেক অভিনন্দন।’

advertisement