advertisement
advertisement
advertisement
advertisement

সৌদি থেকে এক কাপড়ে দেশে ফিরলেন আরও ১৬০ কর্মী

কামাল পারভেজ অভি সৌদি আরব
১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৩:৫১ | আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ১৩:৫২
ছবি: আমাদের সময়
advertisement

সৌদি প্রশাসনের ধরপাকড়ের শিকার হয়ে সৌদি আরব থেকে আবারও শূন্য হাতে এক কাপড়ে দেশে ফিরলেন ১৬০ প্রবাসী বাংলাদেশি। গতকাল মঙ্গলবার রাত ১১টা ২০ মিনিটে সৌদি এয়ারলাইনসের একটি বিমানে তারা ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান।

এ নিয়ে গত ৯ মা‌সে ১০ হাজা‌রের বে‌শি বাংলাদেশি কর্মী সৌ‌দি আরব থে‌কে দেশে ফিরলেন। এর আগে গত সোমবার রাতে সৌদি আরব প্রশাসনের ধরপাকড়ের শিকার হয়ে দেশে ফেরেন ১৭৫ প্রবাসী কর্মী।

ফেরত আসা কর্মীরা জানান, তাদের এক কাপড়েই বিমানে তুলে দেওয়া হয়েছে। আগের দিন সোমবার ফেরত আসা প্রবাসীদেরও এক কাপড়ে বিমানে ওঠানো হয়েছিল। তাদের অনেককেই খালি পায়ে আবার অনেককে কাজের পোশাক পড়ানো অবস্থায় বিমানে ওঠানো হয়।

বর্তমানে সৌদি আরব সফরে রয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ। তার সফরের মধ্যেই প্রতিদিন দৃষ্টিকটুভাবে বাংলাদেশিদের ধরে ধরে দেশে ফেরত পাঠাচ্ছে সৌদি প্রশাসন।

ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের সহযোগিতায় ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম, বিপদে পড়ে দেশে ফেরত আসা এসব শ্রমিকদের বিমানবন্দরে খাবার সরবরাহ করে নিরাপদে বাড়ি পৌঁছানোর সহায়তা দিয়েছে।

ফেরত আসা প্রবাসীরা অভিযোগ করে বলেন, তাদের মধ্যে অনেকেরই ২০২০ পর্যন্ত আকামার মেয়াদ থাকা সত্ত্বেও তাদের ফেরত পাঠা‌নো হ‌য়েছে।

বরিশালের বাচ্চু সরদার ও চাঁদপুরের মো. জামাল মিয়া জানান, তাদের আকামার মেয়াদ ২০২০ সাল পর্যন্ত থাকা সত্ত্বেও অনেকের সঙ্গে তাদেরকেও দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

এদিকে সৌদি প্রেস এজেন্সির সংবাদ অনুযায়ী, দেশটির কর্তৃপক্ষ তাদের চলমান অভিযানে কাজ ও থাকার নিয়ম লঙ্ঘনের দায়ে প্রায় ৩৮ লাখ বিদেশিকে গ্রেপ্তার করেছে। ২০১৭ সালের নভেম্বর থেকে এ অভিযান চলছে।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, জুনের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৫ লাখ ৪৪ হাজার ৫২১ জনকে। গ্রেপ্তার হওয়া বিদেশিদের মধ্যে ২০১৭ সালের নভেম্বর থেকে এখন পর্যন্ত ৯ লাখ ৪০ হাজার ১০০ জনকে নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলেও সংবাদে উল্লেখ করা হয়।

advertisement